সাহেবেরাবাদ, ওয়াপদা কলোনী গণহত্যা/ Shaheberabad Wapda Colony Genocide

মে মাসের ৮-৯ তারিখের দিকে আরেক হৃদয় বিদারক গণহত্যা সংঘটিত হয় দাকোপ থানার সাহেবেরাবাদ গ্রামে।

 

বাগেরহাটের রামপাল ফকিরহাট, বেতাগা, দাকোপ, বুড়িডাঙ্গা, চুনকুড়ির অসংখ্য লোক নদীপথে ভারতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে শতাধিক নৌকাযোগে চালনার পশর নদী ধরে চুনকুড়ি নদী দিয়ে এগিয়ে যেতে থাকে। পথিমধ্যে উজান বেঁধে যাওয়ায় ভদ্রা ও চুনকুড়ি নদীর সঙ্গম স্থানে ওয়াপদা কলোনী ত্রিমোহনী নামক স্থানে দাকোপ সাহেবেরাবাদের পারে নৌকাগুলো  অনুকূল স্রোতের অপেক্ষায় থামিয়ে দুপুরের খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করতে থাকে। ঠিক অপর পাড়ে ছিলো ওয়াপদা কলোনী এবং সেখানে বিহারীদের বাস ছিলো। তাদের কাছ থেকে খবর পেয়ে দুখানা গানবোটে পাকিস্তানি সেনারা এসে এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে থাকে।

প্রাণভয়ে সকলে দৌঁড়াতে থাকে
, অনেকে পানিতে ঝাপিয়ে পড়ে। পানিতে যারা পালিয়েছিলো, তাদেরকেও পানি থেকে উঠিয়ে গুলি করে হত্যা করে। এরপর পাকিস্তানি বাহিনী বোট থেকে নেমে গোবরা বাড়ি [গোবরধন] হতে শুরু করে দাকোপ সরকারি পুকুরপাড় পর্যন্ত এলোপাতাড়ি গুলি করতে করতে এগিয়ে যেতে থাকে। এখানে বহু লোক নিহত ও গুলিবিদ্ধ হয়। তবে নারী ও শিশুদের কম হত্যা করে। প্রত্যক্ষদর্শী চুনকুড়ির সুরেশ রায় এবং সত্যেন্দ্রনাথ রায় বলেন যে সেদিনের এই নিষ্ঠুর গণহত্যায় কমপক্ষে ১৫০-২০০ লোক নিহত হয়।

গুলিবিদ্ধ অনেকে পথে মারা য়ায়। অধিকাংশই রামপাল বাগেরহাট হওয়ায় তাদের নাম যানা সম্ভব হয়নি
, তবে স্থানীয় কয়েকজনের পরিচয় পাওয়া যায়, তারা হলেনঃ

১] দ্বিজবর রায় [চুনকুড়ি] ২] ফনিভূষণ রায়
{চুনকুড়ি] ৩] মাদার রায় [চুনকুড়ি] ৪] পঞ্চানন রায়[চুনকুড়ি] ৫] বিনয় রায় [চুনকুড়ি] ৬] অনিল রায় [চুনকুড়ি] ৭]  অনাদী ঢালী [সাহেবেরাবাদ] ৮] হাজরা মন্ডল [সাহেবেরাবাদ] ৯] বাচা মন্ডল [সাহেবেরাবাদ] ১০] কালীপদ মন্ডল [চুনকুড়ি] এ ছাড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে যারা বেঁচে আছেন ১] সুকুমার রায় [চুনকুড়ি] এবং ২] শান্তিরাম বালা [চুনকুড়ি] । এ স্থানটি আজো অনালোচিত ও অচিহ্নিত অবস্থায় আছে।

 

****

This atrocious genocide occurred on 8-9 May at Shaheberabad village, Dacope thana. During 1971, many people from Bagerhat, Rampal, Fakirhat, Betaga, Dacope, Buridanga, Chunkuri started to move to India by boats. They stopped meanwhile for food and due to the current of the river. Biharis used to live on the other side of the river. They informed the Pakistani army and they fired upon the Bengalis randomly.

People started to run out of fear, some jumped into the river. But still couldn’t save their lives. Witness claimed that at least 150-200 people died on that brutal genocide. 

Unfortunately, the place is still unmarked and unrecognized.  

নিকটবর্তী আরও স্থান
  • post-image
    সাহেবেরাবাদ, ওয়াপদা কলোনী গণহত্যা/ Shaheberabad Wapda Colony Genocide
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মে মাসের ৮-৯ তারিখের দিকে আরেক হৃদয় বিদারক গণহত্যা সংঘটিত হয় দাকোপ থানার সাহেবেরাবাদ গ্রামে। </span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বাগেরহাটের রামপাল ফকিরহাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বেতাগা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দাকোপ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বুড়িডাঙ্গা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">চুনকুড়ির অসংখ্য লোক নদীপথে ভারতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে শতাধিক নৌকাযোগে চালনার পশর নদী ধরে চুনকুড়ি নদী দিয়ে এগিয়ে যেতে থাকে। পথিমধ্যে উজান বেঁধে যাওয়ায় ভদ্রা ও চুনকুড়ি নদীর সঙ্গম স্থানে ওয়াপদা কলোনী ত্রিমোহনী নামক স্থানে দাকোপ সাহেবেরাবাদের পারে নৌকাগুলো&nbsp; অনুকূল স্রোতের অপেক্ষায় থামিয়ে দুপুরের খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করতে থাকে। ঠিক অপর পাড়ে ছিলো ওয়াপদা কলোনী এবং সেখানে বিহারীদের বাস ছিলো। তাদের কাছ থেকে খবর পেয়ে দুখানা গানবোটে পাকিস্তানি সেনারা এসে এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে থাকে। <br /><br />প্রাণভয়ে সকলে দৌঁড়াতে থাকে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">অনেকে পানিতে ঝাপিয়ে পড়ে। পানিতে যারা পালিয়েছিলো</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তাদেরকেও পানি থেকে উঠিয়ে গুলি করে হত্যা করে। এরপর পাকিস্তানি বাহিনী বোট থেকে নেমে গোবরা বাড়ি [গোবরধন] হতে শুরু করে দাকোপ সরকারি পুকুরপাড় পর্যন্ত এলোপাতাড়ি গুলি করতে করতে এগিয়ে যেতে থাকে। এখানে বহু লোক নিহত ও গুলিবিদ্ধ হয়। তবে নারী ও শিশুদের কম হত্যা করে। প্রত্যক্ষদর্শী চুনকুড়ির সুরেশ রায় এবং সত্যেন্দ্রনাথ রায় বলেন যে সেদিনের এই নিষ্ঠুর গণহত্যায় কমপক্ষে ১৫০-২০০ লোক নিহত হয়। <br /><br />গুলিবিদ্ধ অনেকে পথে মারা য়ায়। অধিকাংশই রামপাল বাগেরহাট হওয়ায় তাদের নাম যানা সম্ভব হয়নি</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তবে স্থানীয় কয়েকজনের পরিচয় পাওয়া যায়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তারা হলেনঃ<br /><br /> ১] দ্বিজবর রায় [চুনকুড়ি] ২] ফনিভূষণ রায় </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">{</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">চুনকুড়ি] ৩] মাদার রায় [চুনকুড়ি] ৪] পঞ্চানন রায়[চুনকুড়ি] ৫] বিনয় রায় [চুনকুড়ি] ৬] অনিল রায় [চুনকুড়ি] ৭]&nbsp; অনাদী ঢালী [সাহেবেরাবাদ] ৮] হাজরা মন্ডল [সাহেবেরাবাদ] ৯] বাচা মন্ডল [সাহেবেরাবাদ] ১০] কালীপদ মন্ডল [চুনকুড়ি] এ ছাড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে যারা বেঁচে আছেন ১] সুকুমার রায় [চুনকুড়ি] এবং ২] শান্তিরাম বালা [চুনকুড়ি] । এ স্থানটি আজো অনালোচিত ও অচিহ্নিত অবস্থায় আছে।</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">****</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal" style="line-height: normal;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black;">This atrocious genocide occurred on 8-9 May at Shaheberabad village, Dacope thana. During 1971, many people from Bagerhat, Rampal, Fakirhat, Betaga, Dacope, Buridanga, Chunkuri started to move to India by boats. They stopped meanwhile for food and due to the current of the river. Biharis used to live on the other side of the river. They informed the Pakistani army and they fired upon the Bengalis randomly.</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal" style="line-height: normal;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black;">People started to run out of fear, some jumped into the river. But still couldn&rsquo;t save their lives. Witness claimed that at least 150-200 people died on that brutal genocide.</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: black;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal" style="line-height: normal;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black;">Unfortunately, the place is still unmarked and unrecognized.</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: black;">&nbsp;&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p>
  • post-image
    খাটালিয়া- লক্ষ্ণীখোলা নিযার্তন কেন্দ্র/ Khatalia- Lokkhikhola Torture Center
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৯৭১ সালে দাকোপ থানার চালনা ইউনিয়নের খাটালিয়া- লক্ষ্মীখোলা গ্রামে আবু বকর শেখের একতলা বাড়িতে রাজাকাররা তাদের ক্যাম্প</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">&nbsp;তৈরী করে। এই ক্যাম্প</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">&nbsp;থেকে রাজাকার বাহিনীর সদস্যরা এলাকায় চরম অত্যাচার- নির্যাতন শুরু করে। তাদের অত্যাচার- নির্যাতনের ফলে এলাকার সংখ্যালঘু সম্প্রদায় ভারতে চলে যায়। এরপরে তারা মুসলমানদের ওপর অত্যচার- নির্যাতন শুরু করে।&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">লুটতরাজ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হত্যাযজ্ঞ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নারীধর্ষণ প্রভৃতি নিত্যনৈমিত্তিক কাজে পরিণত হয়। মুক্তিযুদ্ধের প্রায় পুরোসময় জুড়ে চলে রাজাকারদের এই অত্যাচার- নির্যাতন। অবশ্য মুক্তিযুদ্ধের শেষ দিকে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে গাজী রহমতউল্লাহ দাদুর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধারা রাজাকার ক্যাম্প</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">টি আক্রমণ করে এবং তাদের পরাস্থ করতে সক্ষম হন।&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">In 1971 Razakars built a torture camp on the house of Abu Bakar Sheik at Khatalia on Chalna Union in Dacope Thana. From this camp the Razakars started to torment and torture the people. So</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">,</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> the minor community (Hindus) fled to Kolkat</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">a (India)</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> for shelter. After that the Razakars started to torture the local Muslims on the area. Looting-robing, killing, raping became a daily occurrence here. This barbaric persecution continued throughout the whole war time. </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p>
  • post-image
    পানখালি খেয়াঘাট গণহত্যা, চালনা/ Pankhali Kheyaghat Genocide, Chalna
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">চালনা ইউনিয়নের ঝপঝপিয়া নদীতে এ খেয়াঘাট অবস্থিত। চালনায় ১৯৭১ সালে যুদ্ধকালীন সময়ে রাজাকার ক্যাম্প স্থাপিত হলে ঘাটটি রাজাকাররা বধ্যভূমি হিসেবে ব্যবহার করতে শুরু করে। পানখালীর আতিয়ার রহমান মোল্লার নেতৃত্বে এ ক্যাম্পের ১২০ জন রাজাকার এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। </span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তারা ঘাটের যাত্রী ও এলাকার সাধারণ নিরীহ মানুষদের ধরে নির্যাতন করতো এবং রাতে এ ঘাটে তাদের হত্যা করে লাশ নদীতে ভাসিয়ে দিতো। এখানে বাগেরহাট জেলার দুজন অধ্যাপককে গুলি করে হত্যা করে বলে জানা যায়। অবশ্য রাজাকার কমান্ডার আতিয়ার রহমান মোল্লা এ হত্যাকা-ের কথা অস্বীকার করেন মোল্লা আমীর হোসেনের কাছে [লেখক</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">খুলনা জেলার মুক্তিযুদ্ধ]।</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তার দাবী তারা নকশালদের হাত থেকে বাঁচার জন্য সবুর খান ও মাওলানা ইউসুফের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে এলাকার জানমাল রক্ষা করেছেন। এ স্থানটি নদী ভাঙনের ফলে বিলীন হয়ে গেছে। খেয়া ঘাটটিও ঐ স্থান থেকে বেশ কিছুটা পশ্চিমদিকে সরে এসেছে। এ জায়গাটিও অনালোচিত ও অচিহ্নিত অবস্থায় আছে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">This Kheyaghat is situated on Jhapjhapia River in Chalna Union. During the wartime, the Ghat was used as a camp of Razakars, and became a mass killing site. Razakar Atiar Rahman used to lead a troop consist of 120 Razakars which created a terror in the region. </span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">They used to torture the passengers and ordinary people. and killed them on the Ghat then threw their bodies on the river. Two professors from Bagerhat were also killed here. </span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">The place had been eradicated by river erosion and the position of the Kheyaghat has been changed. </span></p>
  • post-image
    পানখালি খেয়াঘাট নিযার্তন কেন্দ্র, চালনা/ Pankhali Kheyghat torture center, Chalna
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">চালনা ইউনিয়নের ঝপঝপিয়া নদীতে এ খেয়াঘাট অবস্থিত। চালনায় ১৯৭১ সালে যুদ্ধকালীন সময়ে রাজাকার ক্যাম্প</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">&nbsp;স্থাপিত হলে ঘাটটি রাজাকাররা বধ্যভূমি হিসেবে ব্যবহার করতে শুরু করে।&nbsp;&nbsp;পানখালীর আতিয়ার রহমান মোল্লার নেতৃত্বে এ ক্যাম্পে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">র ১২০ জন রাজাকার এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। তারা ঘাটের যাত্রী ও এলাকার সাধারণ নিরীহ মানুষদের ধরে নির্যাতন করতো এবং রাতে এ ঘাটে তাদের হত্যা করে লাশ নদীতে ভাসিয়ে দিতো।&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">এখানে বাগেরহাট জেলার দুজন অধ্যাপককে গুলি করে হত্যা করে বলে জানা যায়। অবশ্য রাজাকার কমান্ডার আতিয়ার রহমান মোল্লা এ হত্যাকান্ডের কথা অস্বীকার করেন মোল্লা আমীর হোসেনের কাছে [লেখক</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">খুলনা জেলার মুক্তিযুদ্ধ]।&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তার দাবী তারা নকশালদের হাত থেকে বাঁচার জন্য সবুর খান ও মাওলানা ইউসুফের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে এলাকার জানমাল রক্ষা করেছেন। এ স্থানটি নদী ভাঙনের ফলে বিলীন হয়ে গেছে। খেয়া ঘাটটিও ঐ স্থান থেকে বেশ কিছুটা পশ্চিমদিকে সরে এসেছে। এ জায়গাটিও অনালোচিত ও অচিহ্নিত অবস্থায় আছে।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';"><span style="mso-spacerun: yes;">***</span></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';"><span style="mso-spacerun: yes;"></span></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">The Kheyaghat is located in Jhaphapia river of Chalna Union. When the Razkar camp was set up during 1971, the Razakars started using the Kheyaghat as mass-killing site. A reign of terror had been established by 120 Razakars. They used to torture local people and then exterminate them in this torture-cell. They used to throw out the bodies in the river. The place has been lost due to river erosion. </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';"><span style="mso-spacerun: yes;"></span></span></p>
  • post-image
    বাজুয়া গণহত্যা/ Bajua Genocide
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">শরণার্থী হত্যার এক ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটে বাজুয়া নামক স্থানে। এখন মৃতপ্রায় হলেও মুক্তিযুদ্ধের সময় বাজুয়ায় অনেক বড় বাজার ছিলো। রয়েছে বাজুয়া ইংরেজি বিদ্যালয়।&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সর্বোপরি মোংলা পোর্টের অতি কাছে&nbsp; হওয়ায় বাজুয়া ছিলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এখানে জড়ো হওয়া শরণার্থীদের উপর হামলা করা হয় ৬ মে ১৯৭১। বাগেরহাট থানার হিন্দুদের উপর আগেই হামলা শুরু হয়ে গিয়েছিল ফলে বাগেরহাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">রামপাল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মোড়েলগঞ্জসহ পাশ্ববর্তী এলাকার হিন্দুরা বাঁচার তাগিদে শরণার্থী হয়ে ভারতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে দু-একদিন আগে থেকে এখানে জড়ো হতে থাকে। উদ্দেশ্য ছিলো একসাথে যাওয়া। উল্লেখ্য বাজুয়া ছিলো হিন্দু অধ্যুষিত এলাকা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ফলে নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য এখানে অনেকে এসেছিলো। এদের আগমনে এলাকার চিত্র পাল্টে যায়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বাজুয়া স্কুলের সমস্ত এলাকা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বাজার&nbsp; আশে পাশের বাড়ি সর্বত্র লোকে লোকারণ্য।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">এ অবস্থায় ৬ মে ঘটে এ করুণ ঘটনা। দুটি লঞ্চ করে কিছু মুখচেনা পাকিস্তানি বাহিনীর দোসরসহ পাকিস্তানি মিলিটারিরা স্কুলের ঘাটে এসে নামে। বাজুয়া স্কুলটি একটি<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>ঐতিহ্যবাহী স্কুল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">একটি দ্বিতল ভবনসহ বেশ কয়েকটা ভবন ছিলো। হাজার হাজার পরিবার স্কুলের ভবনগুলো জুড়ে ছিলো। ঘাতকরা এসেই পুরো স্কুলটা ঘিরে ফেলে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সেদিন ছিলো বাজুয়ার হাটবার [বাজারের দিন]। কাজেই স্কুলসহ পুরো বাজার তারা ঘিরে ফেলে এলোপাতাড়ি গুলি করতে শুরু করে। মানুষ প্রাণভয়ে দিগি</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">&brvbar;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দিক ছুটতে থাকে আর পাখির মত পড়তে থাকে। কেউ ঝাপ দিয়ে নদীতে পড়ে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কেউ পাশ্ববর্তী গ্রামের দিকে ছুটতে থাকে। স্কুলের ভিতরে যারা ছিলো তাদের পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিলো না। খুলনার মুক্তিযোদ্ধা জেমস টি সরকার লিখেছেন- এদিনে রামপাল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বাগেরহাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পিরোজপুর থেকে হাজার হাজার হিন্দুরা নৌকায় করে ভারতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাজুয়ার হাট স্কুলে জড়ো হয়। এ খবর পেয়ে মিলিটারিরা এসে নির্বিচারে গুলি চালিয়ে গণহত্যা শুরু করে। সঙ্গে সঙ্গে এদেশীয় বিহারী ও দোসররা লুটপাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ধর্ষণ শুরু<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>করে। সে এক ভয়ঙ্কর অবস্থা। বিকালে এরা চলে গেলে আমরা গিয়ে লাশগুলো পশুর নদীতে ভাসিয়ে দেই এবং অল্প আহতদের চিকিৎসা করি। দু তিন হাজার মানুষ যারা বেঁচে ছিল ঐ রাতেই তারা ভারতে চলে যায়।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ঠিক কতজন মারা যায় তার সঠিক হিসাব পাওয়া খুব কঠিন। কেননা স্থানীয় লোক খুব বেশি ছিলো না। তবে প্রতক্ষ্যদর্শীর ভাষ্যমতে এ সংখ্যা কোন ভাবেই ৫০০-৬০০ জনের কম না।</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">অধিকাংশ লোক বহিরাগত হওয়ায় তাদের পরিচয় সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তবে তাদের মধ্যে আশেপাশের গ্রামের বেশ কয়েকজন ছিলেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তারা হলেন পিপুলবুনিয়া গ্রামের হরিপদ মুখার্জী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">,</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সন্তোষ মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হীরালাল বিশ্বাস</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দীনবন্ধু বৈরাগী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নিতাই<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>বৈরাগী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">অনন্ত কুমার অধিকারী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কালীপদ অধিকারী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">,</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;"> <span lang="BN">প্রসন্ন মন্ডল</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">এবং নিত্যানন্দ অধিকারী। নদীরহুলা গ্রামের সুনীলকান্তি পোদ্দার এবং কানাই ঢালী।<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>ভাগা গ্রামের রসিকলাল মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">অনন্ত মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পবিত্র কুমার রায়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কিরণ চন্দ্র হালদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দীনবনদ্ধু বিশ্বাস</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">প্রহ্লাদ মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">প্রসন্ন মল্লিক</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কালিপদ মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ফকির চন্দ্র মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">,</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;"> <span lang="BN">কালীপদ মন্ডল</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নির্মল চন্দ্র মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গুরুদাস মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হরিবর প্রামাণিক</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">প্রহ্লাদ মজুমদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নিরঞ্জন মজুমদার এবং রাধানাথ মন্ডল। বাজুয়া গ্রামের কালাচাঁদ সাহা নামে দুজন। </span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">****&nbsp;&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-family: Kalpurush; font-size: 14pt;">A number of Bengali refugees had been killed at Bajua who were looking for shelter. Bajua was quite a big market at that time.</span></p> <p class="MsoNormal" style="line-height: normal;"><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">As it was very near to Mongla Port, it used to be a very important place. Many refugees gathered here and they had been attacked on 6 May, 1971. People mostly belonging to Hindu community from Bagerhat, Rampal, Morrrelganj and nearby places came here to take shelter and cross the border. So Bajua became a very populated place at that time.</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Cambria, serif;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="line-height: normal;"><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">In such conditions, Pakistani army attacked this area with some local associates. Bajua School was a very traditional school and had some big buildings. Thousands of families took shelter on the buildings. That was a market day; the Pakistani army barraged the school area and started to fire capriciously. People started to run here and there and got fired randomly. Some tried to run towards other villages, some jumped into the river to save life. But those were inside the buildings got no chance to escape.</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Cambria, serif;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">The exact number and identity of the dead cannot be determined, as very few of them were locals. But witnesses claimed it is not less than 5-6 hundred.</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Cambria, serif;">&nbsp;&nbsp;</span>&nbsp;</p>
  • post-image
    বারোআড়িয়া গণহত্যা, ৪ নং সুরখালী ইউনিয়ন/ Baroariya genocide, 4 No. Surkhali Union
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বটিয়াঘাটা সদর থেকে প্রায় ১৯ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত বারোআড়িয়া গ্রাম।<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>এই গ্রামের রাজাকাররা মোজাহার ও হাতেমের নেতৃত্বে এক রাতে স্থানীয় গুরুপদের বাড়িতে ঝাপিয়ে পড়ে।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"> হামলাকারীরা গুরুপদ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তার ২০ ও ১১বছর বয়সী দুই ছেলে অংশুপতি ও খোকন কে বাড়ির পাশে নদীর চরে হাটু পর্যন্ত পুঁতে গুলি করে হত্যা করে এবং পাঁচ মাস বয়সী কন্যা পারুলকে টেনে হিচড়ে নিয়ে আছড়ে মেরে ফেলে। গুরুপদের স্ত্রী গুরুদাসী ও ১৬ বছরের কন্যা অঞ্জলিকে তারা তাদের ক্যাম্পে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">&nbsp;আটকে রেখে দীর্ঘদিন অত্যাচার নির্যাতন করে। <br /><br />মুক্তিযোদ্ধারা কামরুজ্জামান টুকুর নেতৃত্বে রাজাকার ক্যাম্প</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">টি উচ্ছেদ করলে সেখান থেকে মানসিক ভারসাম্যহীন গুরুদাসীকে তারা উদ্ধার করে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কিন্তু অঞ্জলিকে আর পাওয়া যায় নি। স্বাধীন বাংলাদেশে খুলনা শহরে গুরুদাসী পাগলী বেশে আমৃত্যু ঘুরে বেড়িয়েছে।<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"><span style="mso-spacerun: yes;">***</span></span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali';">Baroariya village is situated about 19 kilometers south-west of Batiaghata Sadar. In one-night, local Razakars attacked the house of Gurupod. They killed his two sons (age 20 and 11) and his 5-month-old daughter. They also abducted his wife Gurudasi and 16-year-old daughter Anajali. His wife and Anjali were tortured brutally by keeping them in the death camp. They killed Anjali afterwards, and Gurudasi was found alive after the liberation.&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p>
  • post-image
    বারোয়াড়িয়া রাজাকার ক্যাম্প নিযার্তন কেন্দ্র, ৪ নং সুরখালী ইউনিয়ন / Baroariya Razakar camp torture center, 4 No. Surkhali Union
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বটিয়াঘাটা সদর থেকে প্রায় ১৯ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত বারোয়াড়িয়া গ্রাম।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">একাত্তরে এই গ্রামের অধিকাংশ মানুষ ছিল হিন্দু সম্প্রদায়ের। এপ্রিল-মে মাসের মধ্যে গ্রামের বেশির ভাগ মানুষ ভারতে পাড়ি জমায়।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ঐ গ্রামের মণি গোলদারের ফেলে যাওয়া দোতলা বাড়িতে রাজাকাররা তাদের ক্যাম্প স্থাপন করে। ঐ ক্যাম্পে প্রতিদিন বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ ধরে এনে ভীষণ নির্যাতন করা হতো।</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;">***</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black;">Baroariya village is situated about 19 kilometers south-west of Batiaghata Sadar. Most of the villagers belonged to Hindu community and a large portion of them went to India as a refugee by April-May. Razakar set up their camp at the house of Moni Goldar, which was an abandoned house. Everyday numerous people were tortured in the camp. </span></p>
  • post-image
    সুরখালী গণহত্যা, ৪ নং সুরখালী ইউনিয়ন/ Surkhali genocide, 4 No. Surkhali Union
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সুরখালী ইউনিয়নের স্থানীয় রাজাকাররা মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে বিভিন্ন সময়ে বারোআড়িয়া বাজার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">,<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সুরখালী লঞ্চঘাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বারোআড়িয়া লঞ্চঘাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মিষ্টিপুকুর পাড়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">শরাফপুর খেয়াঘাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সুন্দরমহল খেয়াঘাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">,</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সুখদাড়া ও আন্ধারিয়া গ্রামের রাস্তায়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গরিয়ারডাঙ্গা দোকানের ভিতরসহ বিভিন্ন জায়গায় কমপক্ষে ৫০ জন মানুষকে হত্যা করে। এর মধ্যে যাদের নাম জানা যায় তারা হলেন&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">জ্যোতিষ চন্দ্র</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">জোয়াদ আলী গাজী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হরেন্দ্র নাথ মল্লিক</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ইয়াকুব আলী শেখ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">অতুল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গেজেন্দীর হালদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ললিত মোহন </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হীরালাল ঢালী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আবুল কাসেম গোলদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">অনিল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মহিরদ্দিন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বনমালী সরদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মোদাচ্ছের সরদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ছিয়াম উদ্দিন মোল্লা।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali';">Local Razakars of Surkhali Union killed at least 50 people in various place of this union during liberation war 1971. Among them known names are Jyotish Chandra, Joad Ali Gazi, Harendra Nath Mallick, Yakub Ali Sheikh, Atul, Gajender Haldar, Lalit Mohan, Hiralal Dhali, Abul Kashem Goldar, Anil, Mahiruddin, Banmali Sardar, Modasskare Sardar, Siam Uddin Mullah.&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p>
  • post-image
    সুরখালী রাজাকার ক্যাম্প নিযার্তন কেন্দ্র, ৪ নং সুরখালী ইউনিয়ন/ Surkhali Razakar camp torture center, 4 No. Surkhali Union
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সুরখালী গ্রামে স্থানীয় রাজাকাররা ক্যাম্প স্থাপন করে। গাওঘরা রাজাকার ক্যাম্প নির্যাতন কেন্দ্র</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">৪ নং সুরখালী ইউনিয়ন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ঐ ক্যাম্পে প্রায় প্রতিদিন আশেপাশের বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ ধরে এনে নির্যাতন করা হতো।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গাওঘরা ক্যাম্পের রাজাকাররা ছিল অত্যন্ত প্রতিহিংসা পরায়ণ ও হিংস্র।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">এই ক্যাম্পে বহু মানুষকে ধরে এনে সর্বস্ব কেড়ে নিয়ে নির্মম নির্যাতন করা হতো এবং কখনো তাদের মেরে পাশে নদীতে লাশ ফেলে দিতো।&nbsp; &nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">*** </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">Local Razakars set up their camp in Surkhali village which became one of torture center (Gaoghora Razakar camp torture center) of this area. The Razakars of the Gaoghora camp were very vindictive and violent. Lot of people were captured and tortured brutally in the camp. Often the bodies were thrown out in the river after extermination. <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span></span></p>
  • post-image
    মংলা গণহত্যা, বাগেরহাট
    <p>মংলা গণহত্যা</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; mso-ansi-font-size: 11.0pt; line-height: 107%; font-family: SutonnyOMJ;" lang="BN-BD">মংলা জেটিতে এবং বন্দরে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন প্রায় প্রতিদিন হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। যেহেতু বন্দরে দূর-দূরান্তের মানুষ কাজ করত</span><span style="font-family: SutonnyOMJ;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; mso-ansi-font-size: 11.0pt; line-height: 107%; font-family: SutonnyOMJ;" lang="BN-BD">তাই এখানকার বেশিরভাগ লাসের পরিচয় অজ্ঞাত। শহীদদের স্মরণে মংলা বন্দরে একটি স্মৃতিস্তম্ভ স্থাপিত হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: AR-SA;">During the Liberation War, many killings took place at Mongla jetty and port almost every day. Since people from far and wide worked in the port, the identity of most of them are unknown. A memorial has been set up at Mongla port in memory of the martyrs.</span></p>