শাখারীপাড়া গণহত্যা, পাবনা/ Shakharipara Genocide

আতাইকুলা ইউনিয়নের একটা প্রসিদ্ধ গ্রাম হল শাখারীপাড়া। ৭১ এর ১৩ এপ্রিল পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এ গ্রামে এক নির্মম হত্যাযজ্ঞ চালায়। সকাল থেকে চলে এ হত্যাকান্ড। গ্রামে প্রবেশ করে পাকিস্তানি সৈন্য গ্রামে আগুন জালিয়ে দেয় এবং এলপাতারি গুলি করতে থাকে। এদিন শাখারীপাড়া গ্রামের শহিদ হন- স্বপন কুমার সাহা চৌধুরী, গোপাল কুমার সাহা চৌধুরী, দ্বিজেন্দ্রনাথ সাহা, হরেন্দ্রনাথ সাহা, অশোক কুমার সাহা চৌধুরী, কালীপদ বাগচী প্রমুখসহ আরো অনেকে।

 

*** 

Shakharipara is a prominent village of Ataikula Union. On the morning of 13th April, the Pakistani Military Force carried out a brutal genocide in the village. The Pakistani troops set fire to the village and fired aimlessly. Lot of villagers including Swapan Kumar Saha Chowdhury, Gopal Kumar Saha Chowdhury, Dwijendranath Saha, Harendranath Saha, Ashok Kumar Saha Chowdhury, Kalipad Bagchi became martyr on that day.

নিকটবর্তী আরও স্থান
  • post-image
    শাখারীপাড়া গণহত্যা, পাবনা/ Shakharipara Genocide
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">আতাইকুলা ইউনিয়নের একটা প্রসিদ্ধ গ্রাম হল শাখারীপাড়া। </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">&rsquo;<span lang="BN-BD">৭১ এর ১৩ এপ্রিল পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এ গ্রামে এক নির্মম হত্যাযজ্ঞ চালায়। সকাল থেকে চলে এ হত্যাকান্ড। গ্রামে প্রবেশ করে পাকিস্তানি সৈন্য গ্রামে আগুন জালিয়ে দেয় এবং এলপাতারি গুলি করতে থাকে। এদিন শাখারীপাড়া গ্রামের শহিদ হন- স্বপন কুমার সাহা চৌধুরী</span>, <span lang="BN-BD">গোপাল কুমার সাহা চৌধুরী</span>, <span lang="BN-BD">দ্বিজেন্দ্রনাথ সাহা</span>, <span lang="BN-BD">হরেন্দ্রনাথ সাহা</span>, <span lang="BN-BD">অশোক কুমার সাহা চৌধুরী</span>, <span lang="BN-BD">কালীপদ বাগচী প্রমুখসহ আরো অনেকে।</span></span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span lang="BN-BD">***&nbsp;</span></span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">Shakharipara is a prominent village of Ataikula Union. On the morning of 13<sup>th</sup> April, the Pakistani Military Force carried out a brutal genocide in the village. The Pakistani troops set fire to the village and fired aimlessly. Lot of villagers including Swapan Kumar Saha Chowdhury, Gopal Kumar Saha Chowdhury, Dwijendranath Saha, Harendranath Saha, Ashok Kumar Saha Chowdhury, Kalipad Bagchi became martyr on that day.</span></p>
  • post-image
    সারদিয়া গ্রাম গণহত্যা, পাবনা/ Sardia village Genocide
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">১৩ এপ্রিল ১৯৭১ মঙ্গলবার পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী পাবনা সদর উপজেলার আতাইকুলা ইউনিয়নের সারদিয়া গ্রামে গণহত্যা চালায়। সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত চলে তাদের এই গণহত্যা। এ হামলার মূল কারণ ছিলো এই এলাকা ছিলো হিন্দু প্রধান। যে কারণে পাকিস্তানি সৈন্য সম্পূর্ণ গ্রাম জ্বালিয়ে দেয় এবং এলোপাতাড়ি গুলি করতে থাকে। সারদিয়া গ্রামের যারা শহিদ </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD"> তাদের মধ্যে শুধু মাখনলাল পাল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"> এর নাম জানা যায়।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">*** </span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">On 13 April, the Pakistani </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">Military Force</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"> carried out a genocide at Sardia village of Atikula union of Pabna Sadar upazila. The main reason for the attack was that the area was Hindu inhabited. That is why the Pakistani army set fire to the whole village and fired randomly. Lot of people were exterminated during the genocide.&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p>
  • post-image
    কুচিয়ামোড়া গণহত্যা, পাবনা
    <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-family: Vrinda, serif;" lang="BN">১৯৭১ সালের ১৩ এপ্রিল পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী প্রথম পাবনা জেলা সদরের আতাইকুলা ইউনিয়নের কুচিয়ামোড়া গ্রামে প্রবেশ করে সকাল ৯ টা থেকে গণহত্যা চালাতে থাকে।&nbsp;&nbsp;গ্রামে হিন্দু প্রাধাণ্য থাকায় পাকিস্তানিদের বিশেষ নজর ছিল কুচিয়ামোড়া গ্রামের উপর।&nbsp;&nbsp;গ্রামে প্রবেশ করে পাকিস্তানি সৈন্য গ্রামে আগুন জালিয়ে দেয় এবং এলপাতাড়ি গুলি করতে থাকে।&nbsp;&nbsp;এদিনের হামলায় কুচিয়ামোড়া গ্রামে শহিদ হন- মনি গোপাল সাহা</span>,&nbsp;<span style="font-family: Vrinda, serif;" lang="BN">ফণী গোপাল সাহা</span>,&nbsp;<span style="font-family: Vrinda, serif;" lang="BN">সুষেণ কুমার সাহা</span>,&nbsp;<span style="font-family: Vrinda, serif;" lang="BN">রবীন্দ্রনাথ রায়সহ&nbsp;</span><span style="font-family: Vrinda, serif;">আরও প্রায় ২০-২৫ জন।৯৪ পরে পারিবারিকভাবে তাদের শেষকৃত্ত সম্পন্ন করা হয়।</span><span style="font-family: Vrinda, serif;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p>
  • post-image
    লক্ষ্মিপুর কালীবাড়ি গণহত্যা, পাবনা
    <h1>পাকিস্তানি পশুরা আটঘরিয়া থানার লক্ষ্মীপুর কালীবাড়িতে ৭১ এর ২০ আগস্ট এক নির্মম ও পাশবিক হত্যাকাণ্ড চালায়।</h1> <h1>আনুমানিক বেলা ১০ টার সময় পাকবাহিনী লক্ষ্মীপুর হামলা চালায়। গ্রামের বাসিন্দারা মুক্তিবাহিনী আসার কথা শুনে তাদের হাত থেকে রক্ষা পেতে যে যেদিকে পারে পালাতে থাকে। পাকিস্তানি বাহিনী সারা গ্রাম ঘুরে বাড়ি বাড়ি গিয়ে হিন্দু আর আওয়ামী লীগ সমর্থকদের খুঁজতে থাকে। যাদেরকে পায় তাদের হাত পিঠমোড়া করে বেঁধে গ্রামের কালি মন্দিরের সামনে নিয়ে আসে।</h1> <h1>এসময় ২৯ জনকে একসঙ্গে দাড় করিয়ে গুলি করা হয়। ২৯ জনের মধ্যে ২৮ জনই এ ফায়ারে শহীদ হন। মাত্র এক জন গুলি লেগে বেঁচে যায়।&nbsp;</h1>
  • post-image
    লক্ষ্মিপুর কালীবাড়ি গণকবর, পাবনা
    <h1>পাকিস্তানিরা আটঘরিয়া থানার লক্ষিপুর কালীবাড়িতে ৭১ এর ২০ আগস্ট এক নির্মম ও পাশবিক হত্যাকান্ড চালায়।&nbsp; আনুমানিক বেলা ১০ টার সময় পাকবাহিনী লক্ষিপুরে হামলা চালায়। পাকিস্তানি বাহিনী সারা গ্রাম ঘুরে বাড়ি বাড়ি গিয়ে হিন্দু আর আওয়ামী লীগ সমর্থকদের খুঁজতে থাকে। যাদেরকে পায় তাদের হাত পিঠমোড়া করে বেঁধে গ্রামের কালি মন্দিরের সামনে নিয়ে আসে। এসময় ২৯ জনকে একসঙ্গে দাড় করিয়ে গুলি করা হয়। ২৯ জনের মধ্যে ২৮ জনই এ ফায়ারে শহীদ হন। মাত্র এক জন গুলি লেগে বেঁচে যায় কিন্তু সে তের বছর গণহত্যার নির্মম স্মৃতি নিজের শরীরে ধারন করে মারা যায়।&nbsp;</h1>
  • post-image
    কৃষ্ণপুর গণহত্যা, পাবনা
    <p><span style="font-size: 11.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','sans-serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কৃষ্ণপুর গণহত্যা</span><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: SutonnyMJ; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-bidi-font-family: 'Times New Roman'; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: AR-SA;">, </span><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','sans-serif'; mso-ascii-font-family: SutonnyMJ; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-hansi-font-family: SutonnyMJ; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পাবনা</span></p> <p><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','sans-serif'; mso-ascii-font-family: SutonnyMJ; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-hansi-font-family: SutonnyMJ; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"><span style="font-size: 11pt; line-height: 115%;" lang="BN">১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ পাবনা শহরের অদুরবর্তী কৃষ্ণপুরে এক গণহত্যা হয়। তখন চলছিলো পাবনা শহরে কারফিউ। এই কারফিউ ভঙ্গ করেই কিছু মুসল্লি পাকিস্তানিদের হাতে শহিদ শুকুরের নামাজে জানাজা পড়ছিলেন। প্রথমত পাকিস্তান বিরোধীর জানাজা পড়া এবং দ্বিতীয়ত কারফিউ ভঙ্গকরার অপরাধে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী সাধারণের উপর নির্বিচারে গুলি করে।</span></span></p> <p><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','sans-serif'; mso-ascii-font-family: SutonnyMJ; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-hansi-font-family: SutonnyMJ; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"><span style="font-size: 11pt; line-height: 115%;" lang="BN"><span style="font-size: 11.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Calibri','sans-serif'; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-bidi-font-family: 'Times New Roman'; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: AR-SA;">On 26 March 1971, a brutal genocide took place at Krishnapur, not far from Pabna. There was a&nbsp;curfew on in Pabna city. Some devout Muslims were performing Janaza of martyr Shukur breaking this curfew. The Pakistani army fired indiscriminately on civilians for conducting anti-Pakistani&rsquo;s janaza and for violating the curfew.&nbsp;&nbsp;</span></span></span></p>
  • post-image
    ভাড়ারা গ্রাম গণহত্যা, পাবনা
    <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পাবনা জেলার বিভিন্ন স্থানে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর আক্রমণের ধারাবাহিকতায় ১৯৭১ সালের ২৬ মে বুধবার পাবনা সদর উপজেলার ভাড়ালা গ্রামে এসে উপস্থিত হয়। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>তাদের আগমনে সাধারণ গ্রামবাসী হতবিহবল হয়ে পরে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>যে যেদিকে পারে পালাতে থাকে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এসময় আতঙ্কগ্রস্ত কিছু মানুষকে ধরে ফেলে এবং তাদেরকে ভাড়ালা ঐতিহাসিক শাহী মসজিদ প্রাঙ্গণে নিয়ে আসে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী সারা গ্রাম থেকে যাদের ধরে নিয়ে আসেন তাদের মধ্যে থেকে ২৫ জনকে বাছাই করে নিয়ে যায়। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>তাদের আর কোন দিন খুজে পাওয়া যায়নি। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span></span></p>
  • post-image
    উপজেলা প্রাঙ্গণ গণকবর, পাবনা
    <p><span style="font-size: 11.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','sans-serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">উপজেলা প্রাঙ্গণ গণকবর</span><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: SutonnyMJ; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-bidi-font-family: 'Times New Roman'; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: AR-SA;">, </span><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','sans-serif'; mso-ascii-font-family: SutonnyMJ; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-hansi-font-family: SutonnyMJ; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পাবনা</span></p> <p><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','sans-serif'; mso-ascii-font-family: SutonnyMJ; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-hansi-font-family: SutonnyMJ; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"><span style="font-size: 11pt; line-height: 115%;" lang="BN">সুজানগর উপজেলা পরিষদের ভিতরে একটা গণকবর রয়েছে। এখানে ৭ জন শহিদ চিরনিদ্রায় শায়িত আছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় এখন পর্যন্ত কোন চিহ্ন এখানে লাগানো হয়নি যা দেখে বোঝা যাবে কোন কালে এখানে গণকবর ছিলো। আরও দুঃখের বিষয় হল বর্তমানে সেই স্থানে বাড়ি করা হয়েছে।</span></span></p> <p><span style="font-size: 12.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','sans-serif'; mso-ascii-font-family: SutonnyMJ; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-hansi-font-family: SutonnyMJ; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"><span style="font-size: 11pt; line-height: 115%;" lang="BN"><span style="font-size: 11.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Calibri','sans-serif'; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-bidi-font-family: 'Times New Roman'; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: AR-SA;">There is a mass grave inside Sujanagar Upazila Parishad. 7 martyrs are buried here. But sadly, no sign has been put up so far which shows that there was a mass grave here once upon a time. Even more tragic is the fact that there is a house built on the site.</span></span></span></p>
  • post-image
    ভবানীপুর গণহত্যা, পাবনা/ Bhabanipur Genocide
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">১৯৭১ সালের ৩ মে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী সুজানগর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে হামলা করে। এদিন তারা ঐ গ্রামের প্রায় ২০-৩০টা ঘরবাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। সেদিন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ভবানীপুর গ্রামের প্রায় ২০ জনকে গুলি করে হত্যা করে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">On 3<sup>rd</sup> May, the Pakistani invaders attacked the village of Bhabanipur in Sujanagar upazila. On that day, they set fire about 25-30 houses in that village. They killed about 20 people in the village of Bhabanipur on that day.</span></p>
  • post-image
    সুজানগর কালীমন্দির বধ্যভূমি, পাবনা
    <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার কয়েকদিন আগে সুজানগর বাজারের কালীমন্দিরে ঘটে এক নরমেধযজ্ঞ। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>এদিন ছিলো শুক্রবার ১০ ডিসেম্বর। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>পাকিস্তানি সেনারা সুজানগর বাজারের প্রখ্যাত ব্যবসায়ী মানিকদি গ্রামের অজিত ও একই গ্রামের আব্দুল হামিদ এবং সুজানগর থানা সংলগ্ন কালীমন্দিরে অবস্থানকারী তৎকালীন কৃষি কর্মকর্তা গোপাল চন্দ্র ভাদুরীকে ধরে এনে কালীমন্দিরের সামনে হত্যা করে মন্দিরের পাশের একটি কুয়ার মধ্যে নিক্ষেপ করে চলে যায়।</span></p>