রূপদিয়া বধ্যভূমি/ Rupdia Mass killing site

যশোর-খুলনা মহাসড়কের পাশে রূপদিয়া বাজার সংলগ্ন ভৈরব নদের তীরে পুরাতন নীলকুঠিতে ছিল রাজাকারদের ক্যাম্প। এই ক্যাম্পে মুক্তিযোদ্ধা, স্বাধীনতাকামী বাঙালি ও সাধারণ মানুষকে ধরে এনে নানারকম নির্মম নির্যাতন করে হত্যা করা হতো। এই বধ্যভূমিতে জল্লাদের ভূমিকা পালন করতো নরেন্দ্রপুরের আফসার, রায়মানিক, কচুয়ার খালেক ও লুৎফরসহ আরো অনেকে। বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা মাহফুজ-উল-হক ও গোলাম মোস্তফাসহ অনেক খ্যাতিমান ব্যক্তিকে এখানে এনে হত্যা করা হয়। নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে যাওয়া আমিন উদ্দিন জানান, এই বধ্যভূমিতে সমগ্র মুক্তিযুদ্ধকালে প্রায় পাঁচ শতাধিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।

 

*** 

Beside Jessore-Khulna main road, nearby Rupdia Bazar, in the bank of Bhairab River, (at old Nilkuthi) there was a Razakar camp. In this camp many freedom fighters, libertarian Bengalis and local people had been tortured and killed.

Afsar and Roymanik from Narendrapur, khalek and Lutfur from Kochuya used to take part in this genocide as executioner. They have abducted and killed many famous people including freedom fighter Mahfuz-Ul-Haq and Golam Mostofa. At least 5 hundred people had been killed here during 1971.

নিকটবর্তী আরও স্থান
  • post-image
    রূপদিয়া নীলকুঠি নিযার্তন কেন্দ্র/ Rupdia Nilkuthi Torture Centre
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">যশোর খুলনা মহাসড়কে রূপদিয়া বাজারের উত্তরদিকে ভৈরব নদের তীরে নীলকুঠিতে একাত্তরে স্থানীয় রাজাকাররা ক্যাম্প স্থাপন করে। পুরাতন পরিত্যক্ত নীলকুঠি দখল করে রাজাকাররা ঐ এলাকার বেশ কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধকে ধরে এনে নির্মম নির্যাতন করে হত্যা করে। এরপর মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়িতে বিভিন্ন সময় হানা দিয়ে তাদের আত্মীয়স্বজনকে ধরে এনে নানারকম নির্যাতন করতো। যশোর-খুলনা মহাসড়কের পাশে অবস্থিত হওয়ায় স্থানীয় বাঙালিদের পাশাপাশি ভারতগামী নিরীহ শরণার্থীদের ধরে এই নীলকুঠি রাজাকার ক্যাম্পে রেখে তাদের কাছ থেকে সর্বস্ব কেড়ে নিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে লাশ ভৈরব নদে ফেলে দিতো। এই রাজাকার ক্যাম্পে নির্যাতিত একাধিক মানুষ এখনও বেঁচে আছেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তারা বলেছেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সন্ধ্যার পরে নারী-পুরুষ উভয়ের নানারকম অত্যাচার করে দড়ি দিয়ে বেঁধে নদীর তীরে নিয়ে গিয়ে হত্যা করা হতো।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">The local Razakars set</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">up</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;"> a camp in Jessore main road, to the north of Rupdia Bazar, at the bank of Bhairab River in 1971. They had taken the old- abandoned Nilkuthi, and tortured inhumanely some of the local freedom fighters there.<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>Also, the Razakars used to invade the house of the freedom fighters and abducted and tortured their relatives. They had looted and killed the local Bengalis as well as the refugees, who were moving towards Kolkata. Some of the tortured victims are still alive; they have said that both men and women used to be the victim of enormous cruelty. </span></p>
  • post-image
    রূপদিয়া বধ্যভূমি/ Rupdia Mass killing site
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">যশোর</span><span style="font-size: 17.5pt; font-family: Vrinda, sans-serif; color: #222222;" lang="BN">-</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">খুলনা মহাসড়কের পাশে রূপদিয়া বাজার সংলগ্ন ভৈরব নদের তীরে পুরাতন নীলকুঠিতে ছিল রাজাকারদের ক্যাম্প। এই ক্যাম্পে মুক্তিযোদ্ধা</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">স্বাধীনতাকামী বাঙালি ও সাধারণ মানুষকে ধরে এনে নানারকম নির্মম নির্যাতন করে হত্যা করা হতো।&nbsp;</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">এই বধ্যভূমিতে জল্লাদের ভূমিকা পালন করতো নরেন্দ্রপুরের আফসার</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">রায়মানিক</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">কচুয়ার খালেক ও লুৎফরসহ আরো অনেকে। বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা মাহফুজ</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Cambria, serif; color: #222222;">-</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">উল</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Cambria, serif; color: #222222;">-</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">হক ও গোলাম মোস্তফাসহ অনেক খ্যাতিমান ব্যক্তিকে এখানে এনে হত্যা করা হয়।</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে যাওয়া আমিন উদ্দিন জানান</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">এই বধ্যভূমিতে সমগ্র মুক্তিযুদ্ধকালে প্রায় পাঁচ শতাধিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">Beside Jessore-Khulna main road, nearby Rupdia Bazar, in the bank of Bhairab River, (at old Nilkuthi) there was a Razakar camp. In this camp many freedom fighters, libertarian Bengalis and local people had been tortured and killed.</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">Afsar and Roymanik from Narendrapur, khalek and Lutfur from Kochuya used to take part in this genocide as executioner. They have abducted and killed many famous people including freedom fighter Mahfuz-Ul-Haq and Golam Mostofa.&nbsp;</span><span style="font-size: 14pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; color: #222222; background-image: initial; background-position: initial; background-size: initial; background-repeat: initial; background-attachment: initial; background-origin: initial; background-clip: initial;">At least 5 hundred people had been killed here during 1971.</span></p>
  • post-image
    রূপদিয়া রোস্তম ডাক্তারের বাড়ি রাজাকার ক্যাম্প/ Rupdia Dr Rostom’s House Razakar Camp
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">রূপদিয়া বাজারে রোস্তম ডাক্তারের বাড়িতে রাজাকাররা ক্যাম্প স্থাপন করে। এই রাজাকার ক্যাম্পের কমান্ডার ছিল কুখ্যাত আফছার। আফছারের বাড়ি যশোর সদর উপজেলার নরেন্দ্রপুর গ্রামে। মুক্তিযুদ্ধের সময় রাজাকার আফছার ঘাড়ে রাইফেল ঝুলিয়ে কচুয়া</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">রূপদিয়া</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">চাউলিয়া</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নরেন্দ্রপুর এলাকায় ব্যাপক ত্রাস সৃষ্টি করেছিল। রোস্তম ডাক্তারের বাড়িতে স্থাপিত ক্যাম্পে বাঙালিদের ধরে এনে অকথ্য নির্যাতন চালিয়ে তাদের হত্যা করা হতো। এই ক্যাম্পের জল্লাদ ছিল আফছার নিজেই। তার হাতে নৃশংসভাবে খুন হয়েছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহফুজুল হক</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মোস্তফা মৌলবী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সান্যাল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গফুর</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মৃধা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আব্দুল জলিল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গহর আলীসহ অসংখ্য নিরীহ স্বাধীনতাকামী বাঙালি নারী-পুরুষ।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush;">The Razakars set a camp on Dr Roston&rsquo;s house at Rupdia Bazar (market). The commander of this camp was Afsar from Narendrapur at Jessore Sadar. During the wartime, he caused fright on Kochuya, Rupdia, Chaulia, Narendrapur area by his weapons. Many Bengalis were being tortured monstrously and killed on this house. Afsar played the role of executioner himself. Many people including freedom fighter Mahfuzul Haque, Mostafa Moulobi, Sanal, Gofur, Mridha, Abdul Jalil and Gohor Ali had been killed.</span></p>
  • post-image
    দাইতলা ব্রিজ গণহত্যা / Daytala Bridge genocide
    <p>যশোর সদর উপজেলার ১২নং ফতেপুর ইউনিয়নে দাইতলা গ্রামে বুড়ি ভৈরব নদের ওপরে দাইতলা ব্রিজ অবস্থিত। এই ব্রিজের ওপর পাকিস্তানি সেনারা বহু বাঙালিকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। এর আশে পাশের গ্রামগুলি পাকিস্তান আমল থেকেই মুক্তিযুদ্ধবিরোধীদের অবস্থান বেশি ছিল। রাজাকার, শান্তিকমিটির সদস্য ও বিহারিরা আশে পাশের গ্রামে বিভিন্ন সময় লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ও নানারকম অত্যাচার চালায়। তারা বাঙালিদের ধরে এনে দাইতলা ব্রিজের ওপর নির্মমভাবে হত্যা করে তাদের লাশ বুড়ি ভৈরবে ভাসিয়ে দিতো। মুক্তিযুদ্ধকালে কমপক্ষে ৫ দিনে এখানে দুইশতাধিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল। নড়াইল, গোপালগঞ্জসহ বিভিন্ন অঞ্চলের লোক এখানে বেশি হত্যার শিকার হয়। ফলে তাদের নাম পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি।</p> <p>&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p> <p><strong>Daitla Bridge is located on the Buri Bhairab river in Daitla village under Fatepur union in Jessore sadar upazila. Pakistani army use to brutally kill many Bengali people on this bridge. Razakars, peace committee members and villagers use to looting, start fire and carried out various tortures at different villages nearby. They use too took the Bengalis and brutally killed them on the Ditala Bridge and threw their bodies into the river. Twenty-two people were killed in at least 5 days here.</strong></p> <p>&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p>
  • post-image
    মুড়লির মোড় গণহত্যা/ Muroli Mor Genocide
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal; tab-stops: 175.5pt;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">যশোর</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">খুলনা ও বেনাপোল মহাসড়কের মিলিত স্থান মুড়লির মোড়। খুলনা থেকে যশোর শহরে প্রবেশের মুখে মুড়লির মোড় থেকে ডানদিকে যশোর শহর। মুক্তিযুদ্ধ শুরুর পরপরই এপ্রিলের গোড়ার দিকে যশোর ক্যান্টনমেন্ট থেকে বেশ কিছু সংখ্যক পাকিস্তানি সৈন্য মুড়লির মোড়ে এসে ঘাঁটি স্থাপন করে। পাকিস্তানি সেনারা এবং তাদের দোসর বিহারিরা নিরীহ বাঙালিদের এখানে ধরে এনে নির্মম নির্যাতন করে হত্যা করতো। কিন্তু ৫ এপ্রিল মনিরামপুর এলাকা থেকে স্বাধীনতাকামী অসংখ্য মানুষ ট্রাকযোগে যশোর শহরে প্রবেশের সময় পাকিস্তানি সেনাবাহিনী নিরস্ত্র মানুষের ওপর নির্মম গুলি চালায়। অল্প সময়ের মধ্যে শতাধিক মানুষকে তারা সেদিন হত্যা করে।</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">***&nbsp;&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">Muroli crossing is situated at Jessore, Khulna and Benapole highways. In early April, a large number of Pakistani armies came from Jessore Cantonment and set up camp at Muroli crossing. The Pakistani army and </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">the </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">collaborators used to </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">bring</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> local people here as captive, and then tortured and killed them. On April 5, the Pakistani Army fired upon the unarmed people of Monirampur while they were going to Jessore by a truck. Within a short time, they had killed hundreds of people on that day. </span></p> <p>&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p>
  • post-image
    সিঙ্গিয়া মোড় গণহত্যা/ Singia Mor Genocide
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ও তাদের দোসর রাজাকার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আলবদর</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">শান্তিকমিটির লোকদের দ্বারা অত্যাচারিত হয়ে যশোর জেলার বিভিন্ন থানার মানুষ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বিশেষ করে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন এবং প্রগতিশীল রাজনৈতিক কর্মীরা প্রাণের ভয়ে ভারতে পাড়ি জমাতে থাকেন। মে মাসের ২০ তারিখে পাকিস্তানি বাহিনী ও রাজাকাররা সম্মিলিতভাবে সিঙ্গিয়া মোড়ে এরকম একটি ভারতগামী দলের শতশত মানুষকে আটকে দেয়। এরপর তাদের কাছে থাকা জিনিসপত্র লুটপাট করে কিছু নারীকে তারা অপহরণ করে নিয়ে যায়। তারপর সিঙ্গিয়া মোড়ের যশোর-খুলনা মহাসড়কের ওপরে এবং তার আশে পাশে ছড়িয়ে থাকা অসহায় মানুষগুলোর ওপর নির্বিচারে গুলি চালায়। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর গুলিতে সেদিন প্রায় তিন শতাধিক মানুষ প্রাণ হারায়। বিভিন্ন স্থানের বহিরাগত হওয়ায় তাদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">Persecuted by the Pakistani Army and their collaborators, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">people from Jessore district, especially the Hindu community and political activist </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">started to go India. On May 20, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">Pakistani forces and collaborators jointly detained hundreds of people at Singia crossing, who were escaping to India. They then looted, kidnapped women and fired indiscriminately. At least 300 people were killed that day. Since most people were outsiders, it is not possible to retrieve their names.</span></p>
  • post-image
    মাগুরা বাজার গণহত্যা
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal;"><span style="font-size: 12.0pt; font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-weight: bold;">AfqbMi Dc&Dagger;Rjvi 1bs gnvKvj BDwbq&Dagger;bi gv&cedil;iv evRv&Dagger;i cvwK&macr;&Iacute;vwb nvbv`vi I Zv&Dagger;`i G&Dagger;`kxq &dagger;`vmiiv 15 &dagger;g Zvwi&Dagger;L wbg&copy;g MYnZ&uml;v NUvq| AmsL&uml; bvix&Ntilde;cyi&aelig;l wk&iuml;&Dagger;K AvU&Dagger;K &dagger;i&Dagger;L Zv&Dagger;`i me&copy;&macr;^ &dagger;K&Dagger;o wb&Dagger;q wbg&copy;gfv&Dagger;e nZ&uml;v K&Dagger;i cvwK&macr;&Iacute;vwb &dagger;mbv, ivRvKvi I wenvwiiv| `~i `~iv&Dagger;&scaron;&Iacute;i wewfb&oelig; RvqMv &dagger;_&Dagger;K Avmv &dagger;jvKRb weavq Zv&Dagger;`i bvg cwiPq Rvbv hvq bv| Z&Dagger;e &dagger;mw`b 30 R&Dagger;bi AwaK gvbyl&Dagger;K nZ&uml;v Kiv nq gv&cedil;iv evRv&Dagger;i|</span></p>
  • post-image
    বকচর গণহত্যা/ Bakchar Genocide
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">যশোর পৌর এলাকার বকচর গ্রামে ২৯ মার্চ পাকিস্তানি সেনাবাহিনী প্রবেশ করে এবং অসংখ্য মানুষকে হত্যা করে। বকচর বটতলা এলাকায় অধিকাংশ হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ বাস করতো। এখানকার শতবর্ষী বটগাছের তলায় তারা পূজা অর্চনা করতো। এই বটগাছের পাশে ছিল একটি কুয়া। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের এদেশীয় দোসররা এই এলাকার নিরীহ মানুষদের ধরে জবাই করে এই কুয়োর মধ্যে ফেলে দিতো। শতশত মানুষকে এখানে হত্যা করা হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">৫ এপ্রিল পাকিস্তানি বাহিনী গ্রামে প্রবেশ করে শতাধিক বাঙালিকে ধরে এনে পাশে নটবর বাবুর বাঁশ বাগানে দাঁড় করিয়ে তাঁদের হত্যা করে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">***&nbsp;&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">193. On 29th March, the Pakistani army entered Bakchar village in Jessore municipality and killed many people. Mostly, the Hindu community lived in the Bakchar Batala (base of Banyan tree) area. They used to perform religious veneration on the base of the Banyan tree here. There was a well besides this. During the Liberation War, the Pakistani army and their native collaborators captured and killed hundreds of innocent people in the area and threw them into the well.</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">On 5 April, the Pakistani forces entered the village and captured hundreds of Bengalis and killed them. </span></p>
  • post-image
    বকচর গণকবর/ Bokchor Mass Grave
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">যশোর শহরের বকচর বধ্যভূমিতে শহিদ হন অসংখ্য স্বাধীনতাকামী বাঙালি। পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ও বিহারিরা সম্মিলিতভাবে এই গণহত্যা চালায়। বাঙালিদের ধরে এনে ২৯ মার্চ হত্যা করে সেইসব লাশ পাশে নটবর বাবুর বাঁশ বাগানে গণকবর দেয় হয়। এই বধ্যভূমিতে নিহত শহিদদের স্মরণে যশোর খুলনা সড়কের পাশে স্মৃতি ফলক স্থাপন করা হলেও ঐ গণকবরটি চিহ্নিত ও সংরক্ষণের কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">A huge number of Bengalis had been martyred on this genocide. Pakistani Military Force and Biharis jointly perpetrated this genocide. They captured many Bengalis and killed them on 29<sup>th</sup></span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">March. The dead bodies were buried in the garden of Notor Babu. There is a memorial beside Jessore- Khulna road to reminisce the martyrs of this genocide. </span></p>
  • post-image
    নীলগঞ্জ বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন বধ্যভূমি/ Mass Killing Filed near Nilganj BGB Camp
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বর্তমানে যশোর নড়াইল সড়কের উত্তর পাশে ঝুমঝুমপুরে যশোর সদর উপজেলা পরিষদে মুক্তিযুদ্ধ শুরুর অল্প কিছুদিন পরে রাজাকার সালাম একটি ক্যাম্প তৈরি করে। ঐ ক্যাম্পে সাধারণ মানুষদের ধরে এনে অকথ্য নির্যাতন করা হতো। তাছাড়া রাতের বেলা নীলগঞ্জ ব্রিজের ওপর এবং নীলগঞ্জ শ্মশানে সাধারণ মানুষদেরকে হত্যা করে নদীতে লাশ ভাসিয়ে দেয়া হতো। প্রায় ৭দিনে শতাধিক মানুষকে এই বধ্যভূমিতে হত্যা করা হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">*** </span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">Razakar Salam </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">set up</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> a camp at Jhumjhumpur in Jessore Sadar Upazila Parishad. Local people were captured and tortured in this camp. People had been killed over Nilganj bridge and on Nilganj crematory. Hundreds of the people were killed in this mass killing filed within </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">7</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> days.</span></p>