বাহাদুরপুর গণহত্যা/ Bahadurpur Genocide

১৮ এপ্রিল যশোর সদর উপজেলার নওয়াপাড়া ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী সকাল ৮টার দিকে প্রবেশ করে। গ্রামের দুদিক দিয়ে তারা সাধারণ নিরীহ গ্রামবাসীদের আটক করে নিয়ে যায় পশ্চিম দিকে কামারবাড়ি জঙ্গলের কাছে। জনমানবহীন ঐ জঙ্গলের মধ্যে নিয়ে তাদের কাছে প্রশ্ন করা হয় তোমরা বাঙালি না বিহারি ? আটককৃতদের কেউ কেউ বলে আমরা মুসলমান। তখনই শুরু হয় নির্মম মারধর ও নির্যাতন। পাকিস্তানি সেনারা বলতে থাকে বাঙালি মুসলমান হয় না। এরপর একজন মেজরের নির্দেশে সেনারা নির্মম গণহত্যা ঘটায়। কিছুক্ষণ পরে সবাই মারা গেছে কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য পুনরায় গুলি চালায়। এখানে কমপক্ষে ৫০ জনকে হত্যা করা হয়। এই গণহত্যায় শহিদদের স্মরণে যশোর-মাগুরা মহাসড়কের পাশে বাহাদুরপুর বাজারে একটি স্মৃতিফলক নির্মাণ করা হয়েছে।

 

***

On 18th April, the Pakistani army entered Bahadurpur village of Noapara Union, Jessore Sadar Upazila at around 8 am. They captured the innocent villagers and bring them on Kamarbari jungle. The Pakistani army interrogated them whether they are Bengali or Bihari. Some of them said they are Muslims and Pakistani Army started torturing brutally. Then at the behest of a Major, soldiers perpetrated genocide. They shot again to confirm the death. At least 50 people were killed here.

নিকটবর্তী আরও স্থান
  • post-image
    বাহাদুরপুর গণহত্যা/ Bahadurpur Genocide
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৮ এপ্রিল যশোর সদর উপজেলার নওয়াপাড়া ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী সকাল ৮টার দিকে প্রবেশ করে। গ্রামের দুদিক দিয়ে তারা সাধারণ নিরীহ গ্রামবাসীদের আটক করে নিয়ে যায় পশ্চিম দিকে কামারবাড়ি জঙ্গলের কাছে। জনমানবহীন ঐ জঙ্গলের মধ্যে নিয়ে তাদের কাছে প্রশ্ন করা হয় তোমরা বাঙালি না বিহারি </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">? </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আটককৃতদের কেউ কেউ বলে আমরা মুসলমান। তখনই শুরু হয় নির্মম মারধর ও নির্যাতন। পাকিস্তানি সেনারা বলতে থাকে বাঙালি মুসলমান হয় না। এরপর একজন মেজরের নির্দেশে সেনারা নির্মম গণহত্যা ঘটায়। কিছুক্ষণ পরে সবাই মারা গেছে কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য পুনরায় গুলি চালায়। এখানে কমপক্ষে ৫০ জনকে হত্যা করা হয়। এই গণহত্যায় শহিদদের স্মরণে যশোর-মাগুরা মহাসড়কের পাশে বাহাদুরপুর বাজারে একটি স্মৃতিফলক নির্মাণ করা হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">***</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">On 18th April, the Pakistani army entered Bahadurpur village of Noapara Union</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">Jessore Sadar Upazila at around 8 am. They captured the innocent villagers and bring them on Kamarbari jungle. The Pakistani army interrogated them whether they are Bengali or Bihari. Some of them said they are Muslims and </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">Pakistani Army started</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> torturing brutally. Then at the behest of a Major, soldiers perpetrated genocide. They shot again to confirm the death. At least 50 people were killed here. </span></p>
  • post-image
    উপশহর পাকর্ বধ্যভূমি
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal;"><span style="font-size: 12.0pt; font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-weight: bold;">weivgcyi miKvwi c&Ouml;v_wgK we`&uml;vjq msjM&oelig; ea&uml;f&sbquo;wg </span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal;"><span style="font-size: 12.0pt; font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-weight: bold;">h&Dagger;kvi m`i Dc&Dagger;Rjvi 4bs bIqvcvov BDwbq&Dagger;b weivgcyi miKvwi c&Ouml;v_wgK we`&uml;vjq| weivgcyi c&Ouml;v_wgK we`&uml;vj&Dagger;qi D&Euml;icvk w`&Dagger;q &circ;fie b` c&Ouml;evwnZ n&Dagger;q&Dagger;Q| gyw&sup3;hy&Dagger;&times;i mgq wewfb&oelig; RvqMv &dagger;_&Dagger;K gyw&sup3;&Dagger;hv&times;v, gyw&sup3;hy&Dagger;&times; bvbvfv&Dagger;e mnvqZvKvix bvix-cyi&aelig;l I mvaviY wbixn gvbyl&Dagger;K a&Dagger;i G&Dagger;b c&Ouml;_&Dagger;g Zv&Dagger;`i K&uml;v&Dagger;&curren;&uacute; AgvbywlK wbh&copy;vZb Kiv n&Dagger;Zv| Zvici Zv&Dagger;`i iv&Dagger;Zi A&Uuml;Kv&Dagger;i b`xi cv&Dagger;k wb&Dagger;q mvwie&times;fv&Dagger;e `uvo Kwi&Dagger;q nZ&uml;v Kiv n&Dagger;Zv| GQvov Av&Dagger;k cv&Dagger;ki M&Ouml;v&Dagger;gi hyeZx &dagger;g&Dagger;q&Dagger;`i a&Dagger;i G&Dagger;b ivRvKvi&Dagger;`i K&uml;v&Dagger;&curren;&uacute; ivRvKvi I cvwK&macr;&Iacute;vwb &dagger;mbviv al&copy;Y K&Dagger;i Zv&Dagger;`i H b`xi Zx&Dagger;i wb&Dagger;q nZ&uml;v Kiv n&Dagger;Zv| gyw&sup3;hy&times;Kv&Dagger;j A&scaron;&Iacute;Z 20 wU MYnZ&uml;vi gva&uml;&Dagger;g GLv&Dagger;b Kgc&Dagger;&yuml; 500&Ntilde;Gi AwaK gvbyl&Dagger;K nZ&uml;v Kiv n&Dagger;q&Dagger;Q| ZvQvov e&ucirc; gvbyl&Dagger;K nZ&uml;v K&Dagger;i wegj eveyi evwoi cvZKz&Dagger;qvi g&Dagger;a&uml; jvk &dagger;djv n&Dagger;Zv| eZ&copy;gv&Dagger;b &dagger;m cvZKz&Dagger;qvwU Avi &dagger;bB|</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal;">&nbsp;</p>
  • post-image
    বিরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন বধ্যভূমি/ Birampur Government Primary School Mass Killing Field
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">যশোর সদর উপজেলার ৪নং নওয়াপাড়া ইউনিয়নে বিরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিরামপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উত্তরপাশ দিয়ে ভৈরব নদ প্রবাহিত হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের সময় বিভিন্ন জায়গা থেকে মুক্তিযোদ্ধা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মুক্তিযুদ্ধে নানাভাবে সহায়তাকারী নারী-পুরুষ ও সাধারণ নিরীহ মানুষকে ধরে এনে প্রথমে তাদের ক্যাম্পে অমানুষিক নির্যাতন করা হতো। তারপর তাদের রাতের অন্ধকারে নদীর পাশে নিয়ে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে হত্যা করা হতো। এছাড়া নারীদের ধর্ষণ করে হত্যাও করা হতো। মুক্তিযুদ্ধকালে এখানে কমপক্ষে ৫০০-এর অধিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">***</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">Birampur Government Primary School is situated at </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">4</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> no Nawapara Union in Jessore Sadar Upazila. The Bhairab River passes through the north side of the School. During the Wartime, freedom fighters, women and men who assisted in the war, and local peoples were captured, tortured inhumanly then killed in their camp. Women were raped and killed. It is estimated that, at least </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">500</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> people were killed during the Liberation War. </span></p>
  • post-image
    বিমল রায় চৌধুরীর বাড়ি নিযার্তন কেন্দ্র/ Bimol Roy Chowdhury Bari (Home) Torture Centre
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">যশোর শহরের উত্তরদিকে নওয়াপাড়া ইউনিয়নের বিরামপুর গ্রামে বিমল রায় চৌধুরী পুরাতন দোতলা বাড়িটি একাত্তরে রাজাকারদের ঘাঁটি ছিল। রায় চৌধুরীরা মুক্তিযুদ্ধকালে বাড়িটি ফেলে রেখে চলে গেলে রাজাকাররা দখল করে সেখানে ক্যাম্প স্থাপন করে। যশোর শহর এবং অন্যান্য স্থান থেকে স্বাধীনতাকামী বাঙালিদের ধরে নির্মম নির্যাতন করে পাশে ভৈরব নদের তীরে নিয়ে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে কখনো গুলি করে আবার কখনো জবাই করে হত্যা করে লাশ নদীতে ভাসিয়ে দিতো।</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">To the north of Jessore city, in Noapara Union at Birampur village, the Razakars made their camp on Bimol Roy Chowdhury&rsquo;s 2 two-storied house.</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;"> During the wartime, Roy Chowdhury left the house and therefore the Razakars seized the house and usedit as their camp.</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;"> They used to abduct people from Jessore and outside of the Jessore and had killed them on the bank of Bhairab, later they used to throw the bodies in the river.</span></p>
  • post-image
    উপশহর ডাকবাংলো নিযার্তন কেন্দ্র/ Uposhohor Dakbungalow Torture Centre
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">যশোর সদর উপজেলার উপশহর এলাকায় মুক্তিযুদ্ধের সময় বিহারীদের বসবাস ছিল বেশি। বিহারিরা মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও রাজাকারদের সাথে বাঙালি নিধনে মেতে উঠেছিল। স্বাধীনতাকামী বাঙালিদের হত্যায় তারা জল্লাদের ভূমিকা নিয়েছিল। উপশহর এলাকায় বিহারিরা বাঙালিদের ধরে এনে উপশহর ডাকবাংলোয় রেখে প্রথমে নির্মম নির্যাতন চালাতো। চারপাশে উঁচু প্রাচীরে ঘেরা ডাকবাংলোটি একাত্তরে মানুষের কাছে ছিল একটি জল্লাদখানা। বাঙালিদের এখানে এনে বিহারি ও রাজাকাররা নানারকম অমানবিক নির্যাতন করে উপশহর বর্তমান পার্কের এলাকায় নিয়ে হত্যা করতো। কখনো এই ডাকবাংলোতে নির্যাতন করতে করতে অনেককে হত্যা করতো নরপশুরা। যশোর শহর ও আশেপাশের গ্রাম থেকে বহু নারীদের ধরে এনে এই ডাকবাংলোর ভিতরে রেখে দিনের পর দিন তারা ধর্ষণসহ নানারকম অকথ্য<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>নির্যাতন চালাতো। মুক্তিযুদ্ধের পর এই ডাকবাংলোর দেওয়ালে নির্যাতনের নানারকম চিহ্ন ও রক্তের দাগ দেখা যায়।</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">During the wartime, many Biharis used to live in Jessore Sadar Upazilla at Uposhohor area.</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;"> They allied with the Pakistani Army to exterminate Bengali. The Bihari used to abduct people from Uposhohor area</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">and tortured brutally. The Dakbungalow was surrounded with high walls and</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">was as a slaughterhouse for the general people. Many women from Jessore and outside from the Jessore were the victims of their torture, raping, and killing. <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span></span></p>
  • post-image
    বাবলাতলা ব্রিজ গণহত্যা / Bablatla Bridge Genocide
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal; tab-stops: 175.5pt;"><span style="font-family: SutonnyMJ;"><span style="font-size: 16px;">যশোর শহরের নিউ মার্কেট মোড় থেকে সোজা পশ্চিম দিকে যে রাস্তাটি পালবাড়ি মোড়ে গিয়েছে এই সড়কের ওপরে বাবলাতলা ব্রিজ অবস্থিত। এই সড়কের উত্তর পাশে বিহারি বসবাস ছিল। পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর বিহারিদের সহযোগিতায় বহু বাঙালিকে ধরে এনে এই ব্রিজের ওপর দাঁড় করিয়ে হত্যা করে তাদের লাশ ভৈরব নদের পানিতে ভাসিয়ে দিতো। এখানে অন্তত ১০ দিন গণহত্যার মাধ্যমে প্রায় শতাধিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।</span></span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal; tab-stops: 175.5pt;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal; tab-stops: 175.5pt;"><strong>Bablatla Bridge is located near New Market in Jessore city.&nbsp;</strong><strong>Bihari community lived on the north side of this road.&nbsp;</strong><strong>With the collaboration of Biharis, Pakistan army killed many Bengali's&nbsp; by shotting, and throw their body on Bhairab river. Hundreds of people have been killed here.</strong></p>
  • post-image
    সদর হাসপাতাল গণকবর
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal;"><span style="font-size: 12.0pt; font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-weight: bold;">cvwK&macr;&Iacute;vwb &dagger;mbvevwnbx h&Dagger;kvi m`i nvmcvZv&Dagger;j 4 R&Dagger;bi jvk Kei &dagger;`qv| KeiwU cvKv K&Dagger;i<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>euvav&Dagger;bv Av&Dagger;Q Ges kwn&Dagger;`i<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>bvg &dagger;jLv Av&Dagger;Q| kwn`iv n&Dagger;jb wmivRyj Bmjvg, mvLvIqvZ &dagger;nv&Dagger;mb, kvn Avjg I &dagger;mvbvwgqv| </span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: .0001pt; text-align: justify; line-height: normal;"><span style="font-size: 12.0pt; font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-family: SutonnyMJ; mso-bidi-font-weight: bold;">&nbsp;</span></p>
  • post-image
    যশোর সদর হাসপাতাল গণহত্যা/ Jessore Sadar Hospital Genocide
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">৫ এপ্রিল পাকিস্তানি সেনারা যশোর সদর হাসপাতালে ঢুকে গুলি করে ৪ জন কর্মচারীকে হত্যা করে। পাকিস্তানি সৈন্যরা জানতো যে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হাসপাতালের ডাক্তার ও কর্মচারীরা আহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে সুস্থ করে তুলতো। সেজন্যে তাদের ওপর পাকিস্তানি সেনাদের ক্ষোভ ছিল। ৪ জন নিহত হলেও আহত হন বেশ কয়েকজন। তাদের গণকবরটি হাসপাতালের চত্বরে চিহ্নিত করে রাখা হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">On April </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">5</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, Pakistani troops attacked Jessore Sadar Hospital and shot dead </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">4</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> employees. Due to the fact that, doctors and staffs of the hospital used to provide medical assistance to the freedom fighters, Pakistani Army were enraged. </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">Besides the casualties, many more were injuredalso.</span></p>
  • post-image
    উদ্যান উন্নয়ন বোডর্ গণকবর/ Uddan Unnayon Road Mass Grave
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">যশোর-ঝিনাইদহ সড়কের পূর্ব পাশে হর্টিকালচার সেন্টার অবস্থিত। এই হর্টিকালচার সেন্টারের সীমানার মধ্যে অসংখ্য মানুষকে হত্যা করেছে পাকিস্তানি সেনা ও বিহারিরা। এই গণকবরে পাঁচজন শহিদের নাম খোদাই করা আছে। নামগুলো হলো- শাহাবুদ্দিন</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">সফিউদ্দীন</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">জহুরুল ইসলাম</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush; color: #222222;" lang="BN">ইজ্জত আলী ও আবুল হোসেন।</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">A Horticulture Centre is situated on the east of Jessore-Jhinaidah Road. In 1971, Pakistani Army and Biharis had killed lot of people in this center. There is a mass grave in this place which is a evidence of the horrific genocide. 5 names are engraved here,</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;"> they are: Shahabuddin, Shofiuddin, Johurul Islam, Ijjot Ali and Abul Hossein.</span></p>
  • post-image
    ফাতিমা হাসপাতাল গণহত্যা/ Fatima Hospital Genocide
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">খ্রিস্টান মিশনারীদের এই হাসপাতালটি যশোর শহরের গরীবশাহ রোডে অবস্থিত। মুক্তিযুদ্ধের সময়ে এই হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্সরা আহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা সেবা ও অন্যান্য সাহায্য করতেন। তাই পাকিস্তানি সৈন্যরা ৪ এপ্রিল হাসপাতালে ঢুকে ফাদার মারিও ভেরোনেসি</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পল স্বপন বিশ্বাস সহ আরো ৫ জনকে নির্মমভাবে গুলি করে হত্যা করে। এই শহিদদের স্মরণে হাসপাতাল চত্বরে একটি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করা হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">The Christian Missionary Hospital is located on Garib Shah Road in Jessore. During the Wartime, doctors and nurses of this hospital</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">provided medical and other assistance to the injured </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">freedom fighters. So, the Pakistani soldiers intrude to the hospital and brutally killed Father Mario Veronese, Paul Swapan Biswas and </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">5</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> others. A memorial has been built at the hospital premises to commemorate the martyrs.</span></p>