বুনাগাতি বাজার গণহত্যা, মাগুরা/Chabari Village Genocide / Bunagati Market Genocide

বুনাগাতি বাজার গণহত্যা:

মে মাসে রঞ্জন কুমার রায় নামে ছাবড়ি গ্রামের আরও একজন ২ ভাই, ২ জামাই, ১ কাকা ও এক ঠাকুর্দা ভারতে যাওয়ার জন্য যাত্রা করেন। বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর রাস্তায় রাজাকাররা তাদেরকে ঘিরে ফেলে। তাদেরকে ধরে নিয়ে এসে বুনাগাতি হাইস্কুলের পাশে লাইন দিয়ে দাঁড় করিয়ে ৬ জনকে একসাথে গুলি করে। কিন্তু রঞ্জন কুমার রায় বেঁচে যান। ছাবড়ির চৈতন্য বিশাসের পিতাকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করে এবং ৬ যুবককে চোধ বেঁধে গুলি করে হত্যা করে। এরপর পাশের গ্রাম বাকল বাড়িয়ায় আগুন লাগায় এবং ৫ বছরের শিশুকে গুলি করে হত্যা করে। 

 

রাজাকাররা আগস্ট মাসে চারদিকে গুলিবর্ষণ করে আতংক সৃষ্টি করে, এবং বুনাগাতিতে ক্যাম্প প্রতিষ্ঠা করে। ছাবড়ী গ্রামের তারাপদ মাস্টার ছিলেন কমিউনিস্ট পার্টির প্রধান। বুনাগাতিতে ক্যাম্প প্রতিষ্ঠার পর তারাপদ মাস্টারের ৬ ভাইপোকে রাজাকাররা বুনাগাতি বাজারে এনে গুলি করে হত্যা করে। রাজাকাররা মুক্তিযোদ্ধা আয়ুব, বাচ্চু, কাতলীর শাহ আলমকেও এখানে এনে হত্যা করে।’

 

***

Chabari Village Genocide / Bunagati Market Genocide

In May, Ranjan Kumar Ray and his 6-7 family members started for India. After leaving the house, the Razakars surrounded them, then lined them up near Bunagati High School and shot 6 of them together. But, luckly Ranjan Kumar Ray survived. They also killed Chaytanna Biswas’s father by drowning in the water and shot others. Then they set fire on another village named Bakal and killed a 5-year-old child.

The Razakars opened fire and set up camp at Bunagati in August. Tarapada master of Chabari village was the head of the Communist Party. After setting up the camp at Bunagati, the Razakars killed Tarapada master’s 6 nephews at the Bunagati market. They also killed freedom fighters Ayub, Bachchu and Shah Alam here.

নিকটবর্তী আরও স্থান
  • post-image
    বুনাগাতি বাজার গণহত্যা, মাগুরা/Chabari Village Genocide / Bunagati Market Genocide
    <p>বুনাগাতি বাজার গণহত্যা:</p> <p>মে মাসে রঞ্জন কুমার রায় নামে ছাবড়ি গ্রামের আরও একজন ২ ভাই, ২ জামাই, ১ কাকা ও এক ঠাকুর্দা ভারতে যাওয়ার জন্য যাত্রা করেন। বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর রাস্তায় রাজাকাররা তাদেরকে ঘিরে ফেলে। তাদেরকে ধরে নিয়ে এসে বুনাগাতি হাইস্কুলের পাশে লাইন দিয়ে দাঁড় করিয়ে ৬ জনকে একসাথে গুলি করে। কিন্তু রঞ্জন কুমার রায় বেঁচে যান। ছাবড়ির চৈতন্য বিশাসের পিতাকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করে এবং ৬ যুবককে চোধ বেঁধে গুলি করে হত্যা করে। এরপর পাশের গ্রাম বাকল বাড়িয়ায় আগুন লাগায় এবং ৫ বছরের শিশুকে গুলি করে হত্যা করে।&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p> <p>রাজাকাররা আগস্ট মাসে চারদিকে গুলিবর্ষণ করে আতংক সৃষ্টি করে, এবং বুনাগাতিতে ক্যাম্প প্রতিষ্ঠা করে। ছাবড়ী গ্রামের তারাপদ মাস্টার ছিলেন কমিউনিস্ট পার্টির প্রধান। বুনাগাতিতে ক্যাম্প প্রতিষ্ঠার পর তারাপদ মাস্টারের ৬ ভাইপোকে রাজাকাররা বুনাগাতি বাজারে এনে গুলি করে হত্যা করে। রাজাকাররা মুক্তিযোদ্ধা আয়ুব, বাচ্চু, কাতলীর শাহ আলমকেও এখানে এনে হত্যা করে।&rsquo;</p> <p>&nbsp;</p> <p>***</p> <p><span style="font-family: 'Times New Roman', serif; font-size: 14pt; text-align: justify;">Chabari Village Genocide / Bunagati Market Genocide</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">In May, Ranjan Kumar Ray and his 6-7 family members started for India. After leaving the house, the Razakars surrounded them, then lined them up near Bunagati High School and shot 6 of them together. But, luckly Ranjan Kumar Ray survived. They also killed Chaytanna Biswas&rsquo;s father by drowning in the water and shot others. Then they set fire on another village named Bakal and killed a 5-year-old child.</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">The Razakars opened fire and set up camp at Bunagati in August. Tarapada master of Chabari village was the head of the Communist Party. After setting up the camp at Bunagati, the Razakars killed Tarapada master&rsquo;s 6 nephews at the Bunagati market. They also killed freedom fighters Ayub, Bachchu and Shah Alam here. </span></p>
  • post-image
    বুনাগাতি বাজার বধ্যভূমি, মাগুরা/Bunagati Market Premises Mass Killing Site, Magura
    <p>বুনাগতি বাজার প্রাঙ্গন বধ্যভূমি&nbsp;&nbsp;</p> <p>১৯৭১ সালের আগস্ট মাসে শালিখা থানার বুনাগাতি বাজারে (বর্তমান হাসপাতালের পাশে) পাকিস্তান হানাদার বাহিনী ও রাজাকার আলবদর বাহিনী ক্যাম্প প্রতিষ্ঠা করে। রাজাকাররা প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকা থেকে অগণিত মানুষ ধরে নিয়ে এসে বুনাগাতি বাজারের ক্যাম্পে হত্যা করে চিত্রা নদীতে ভাসিয়ে দিত। ছাবড়ির চৈতন্য বিশাসের পিতাকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করে এবং ৬ যুবককে চোধ বেঁধে গুলি করে হত্যা করে। বুনাগাতিতে ক্যাম্প প্রতিষ্ঠার পর তারাপদ মাস্টারের ৬ ভাইপোকে রাজাকাররা বুনাগাতি বাজারে এনে গুলি করে হত্যা করে। রাজাকাররা মুক্তিযোদ্ধা আয়ুব, বাচ্চু, কাতলীর শাহ আলমকেও এখানে এনে হত্যা করে।&rsquo; পরে এসব লাশ হাসপাতালের পাশের বধ্যভূমিতে ভাসিয়ে দেয়।</p> <p>&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">Bunagati Market Premises Mass Killing Site, Magura</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">On August of 1971, the Pakistani invaders and the Razakar Al-Badr forces established camps at Bunagati Bazar (beside present hospital) of Shalikha police station. Every day, they use to take countless people from different areas and killed them at the camp of Bunagati market and floated in Chitra River. They had killed his Chaitnya Biswas&rsquo;s father by drowning him in the water and shot 6 young men.<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>6 nephews of Tarapado became martyred here. The Razakars also brought freedom fighter Ayub, Bachchu, Shah Alam.</span></p>
  • post-image
    বুনাগাতি বাজার ক্যাম্প নির্যাতন কেন্দ্র, মাগুরা/Bunagati Market Camp, Magura
    <p>বুনাগাতি বাজার ক্যাম্প নির্যাতন কেন্দ্র</p> <p>বুনাগাতি বাজারে ক্যাম্প স্থাপন করার পর আশপাশের গ্রাম থেকে মানুষ ধরে নিয়ে এসে নির্যাতন করেছে। গ্রামের ঘরবাড়ি লুটপাট করেছে। প্রাণের ভয়ে মানুষ জন বাড়ি থেকে চলে গেছে। খালি বাড়িতে যা পেয়েছে লুট করে নিয়েছে ও আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। বুনাগাতির পাশে নরপতি গ্রামে আক্রমণ শেষে লুটপাট করে। ঘর বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। উক্ত গ্রামে ৮৫ বছরের একজন বৃদ্ধ ভগবান সাধুকে বুকে গুলি করে, গুলি করার সাথে সাথে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।&nbsp;&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">Bunagati Market Camp, Magura</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">After setting up camp at Bunagati Bazaar, people from surrounding villages were taken here and tortured. The houses were looted and burnt. The villagers<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>left their homes in fear of lives. They had also looted and burnt Narapati village. They shot an 85 year old person name Bhagaban Shadhu and he died on the spot. </span></p>
  • post-image
    পুলুম বাজার ক্যাম্প নির্যাতন কেন্দ্র, মাগুরা/Pullum Market Camp, Magura
    <p>পুলুম বাজার ক্যাম্প নির্যাতন কেন্দ্র</p> <p>পুলুম বাজারের পাশে একটি ভাঙ্গা দালান এখনও কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। দালানের কাছে গেলে এখনও আর্ত মানুষের চিৎকার অনুভব করা যায়। ১৯৭১ সালে এই দালানে বিহারীরা বসবাস করতো। এই বাড়িকেই রাজাকার আলবদর বাহিনী নির্যাতন ক্যাম্প বানায়। বিভিন্ন স্থান থেকে বিপন্ন মানুষকে ধরে এনে এখানে অমানুষিক নির্যাতন করা হতো। পরবর্তীতে কাউকে ছেড়ে দেয়া হতো কাউকে মেরে ফেলা হতো। স্থানীয় অধিবাসীরা বললেন যে এই এলাকায় রাজাকাররা নির্মম নির্যাতন চালিয়েছে। বিভিন্ন বাড়ি থেকে গরু ছাগল ধরে এনে জবাই করে খেয়েছে, বাড়িতে আগুন লাগিয়েছে।&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">Pullum Market Camp, Magura</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">A broken building adjacent to Pullum Bazaar still stands witness to the time. People can still feel the pain and scream of the tortured people. In 1971, Biharis use to live in this building. The Razakar al-Badr forse set up torture camp here. People from various places were captured and were tortured here. Local residents said that the Razakars perpetrated acute brutality in the area. They looted cattles and set home on fire. </span></p> <div id="gtx-trans" style="position: absolute; left: -6px; top: 104px;">&nbsp;</div>
  • post-image
    হাজরাহাটি গণহত্যা, মাগুরা/Hazarahati Genocide
    <p>হাজরাহাটি গণহত্যা:&nbsp; &nbsp;&nbsp;</p> <p>চিত্রা নদীর পারে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন ফরিদপুর জেলার ৭ অধিবাসী। ডিসেম্বর মাসের ৮ তারিখে ভারত থেকে আসার পথে ঝুনারী গ্রামে পাকিস্তানি সেনা বাহিনী, রাজাকার ও আলবদর বাহিনী তাদের ধরে লাইনে দাঁড় করায়। এরপর তাদেরকে গুলি করে অত্যন্ত নৃশংস ভাবে হত্যা করে। তারপর গ্রামবাসীদের ডেকে এনে কবর খুঁড়িয়ে তার মধ্যে ফেলে দিয়ে মাটি চাপা দিতে বাধ্য করে। এখানে যারা নিহত হয়েছেন তারা হলেন: যদুনাথ দত্ত, পঞ্চানন পাল, হরিপদ পাল, নিত্যানন্দ দত্ত ও&nbsp; মনরঞ্জন ভদ্র, নাড়ু গোপাল রায়, শুসেন কর, এবং অজ্ঞাত একজন।</p> <p>&nbsp;</p> <p>*****</p> <p>&nbsp;</p> <p><span style="font-family: 'Times New Roman', serif; font-size: 14pt; text-align: justify; text-indent: -0.25in;">Hazarahati Genocide</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">6 villagers of Faridpur Zila are lying in the grave on the bank of Chitra River. On 8 December, on their way from India, the Pakistani army, Razakar and Al-Badr forces forced them lined up at Jhunari village and killed in a very brutal way. Then the Pakistani army forced the villagers to dig grave and throw the bodies into it. </span></p>
  • post-image
    হাজরাহাটি গণকবর, মাগুরা/Hazarahti Mass Grave, Magura
    <p>হাজরাহাটি গণকবর&nbsp;</p> <p>চিত্রা নদীর পারে গণকবর দেয়া হয়েছে ফরিদপুর উপজেলার ৭ অধিবাসী যারা হাজরাহাটি গণহত্যায় শহীদ হন। স্বাধীন হওয়ার পর নিহত ব্যক্তিদের ছেলেরা আসে, তাদের পিতার কবর চিহ্নিত করে। কবরটিকে পাকা করে নামফলক লাগিয়ে দেয়।&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">Hazarahti Mass Grave, Magura</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">There is a mass grave of 7 martyrs beside river Chirta in Faridpur. After the independence, their sons identified their father's grave. They preserved and placed nameplate on the grave.</span></p>
  • post-image
    পুরানো শালিখা থানা চত্তর গণহত্যা, মাগুরা/Old Shalikha Poilice Station Genocide, Magura
    <p>পুরানো শালিখা থানা চত্তর গণহত্যা</p> <p>আড়পাড়ায় পাকিস্তানি বাহিনী ক্যাম্প প্রতিষ্ঠা করার ৩ দিন পর পাকিস্তানি সেনারা শালিখা থানায় ক্যাম্প প্রতিষ্ঠা করে। এই ক্যাম্পটি একই সাথে একটি বধ্যভূমি। এখানে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন গ্রাম থেকে নিরীহ মানুষ ধরে এনে থানার পাশে চিত্রা নদীর তীরে অবস্থিত তালগাছ তলায় গুলি করে হত্যা করে নদীতে ভাসিয়ে দিত। আগস্ট মাসে হাজরাহাটির কওছার, শতপাড়ার আলতাফ হোসেনকে ও শরশুনা থেকে আরও ৭ জনকে রাজাকাররা ধরে আনে। সকলকে একসাথে শালিখা থানার পাশে নিয়ে গুলি করে হত্যা করে চিত্রা নদীতে ভাসিয়ে দেয়।&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">Old Shalikha Poilice Station Genocide, Magura</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">The Pakistani army set up camp in Salikha police station Arpara after 3 days of setting up camp at Arpara. At the same time, this camp was a mass killing site. They used to bring innocent people from different villages here and shot them on the bank of the Chitra River. The Pakistani army and Razakar killed 7 people and floated them in the Chitra River.</span></p>
  • post-image
    পুরানো শালিখা থানা চত্তর বধ্যভূমি, মাগুরা/ Old Shalikha Poilice Station Killing Site, Magura
    <p>পুরানো শালিখা থানা চত্তর বধ্যভুমি</p> <p>আড়পাড়ায় পাকিস্তানি বাহিনী ক্যাম্প প্রতিষ্ঠা করার ৩ দিন পর পাকিস্তানি সেনারা শালিখা থানায় ক্যাম্প প্রতিষ্ঠা করে। এই ক্যাম্পটি একই সাথে একটি বধ্যভূমি। এখানে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন গ্রাম থেকে নিরীহ মানুষ ধরে এনে থানার পাশে চিত্রা নদীর তীরে অবস্থিত তালগাছ তলায় গুলি করে হত্যা করে নদীতে ভাসিয়ে দিত। আগস্ট মাসে হাজরাহাটির কওছার, শতপাড়ার আলতাফ হোসেনকে ও শরশুনা থেকে আরও ৭ জনকে রাজাকাররা ধরে আনে। সকলকে একসাথে শালিখা থানার পাশে নিয়ে গুলি করে হত্যা করে চিত্রা নদীতে ভাসিয়ে দেয়।&nbsp;</p> <p>&nbsp;<span style="font-family: 'Times New Roman', serif; font-size: 14pt; text-align: justify;">Old Shalikha Poilice Station Killing Site, Magura</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">The Pakistani army set up camp in Salikha police station Arpara after 3 days of setting up camp at Arpara. At the same time, this camp was a mass killing site. They used to bring innocent people from different villages here and shot them on the bank of the Chitra River. The Pakistani army and Razakar killed 7 people and floated them in the Chitra River.</span></p>
  • post-image
    পুরনো শালিখা থানা নির্যাতন কেন্দ্র, মাগুরা/ Old Shalikha Poilice Station Maas Killing Site, Magura
    <p>পুরনো শালিখা থানা নির্যাতন কেন্দ্র</p> <p>১৯৭১ সালে শালিখা থানার পুরানো ক্যাম্পে নির্যাতন কেন্দ্র ছিল। এই ক্যাম্পে আশপাশের গ্রাম থেকে মানুষ ধরে এনে নির্যাতন করা হতো। বিভিন্ন বাড়িতে আগুন দেয়া হতো। শতপাড়া গ্রামের তছির মোল্লাকে জমিতে কাজ করার সময় ধরে এনে শালিখা থানা ক্যাম্পে নির্যাতন করে হত্যা করে। তার বাড়িতে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয়। তছির মোল্লার ভগ্নিপতিকেও একই দিনে ধরে এনে নির্যাতন করে হত্যা করে।&nbsp;&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">Old Shalikha Poilice Station Maas Killing Site, Magura</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman','serif';">The Pakistani army set up camp in Salikha police station Arpara after 3 days of setting up camp at Arpara. At the same time, this camp was a mass killing site. They used to bring innocent people from different villages here and shot them on the bank of the Chitra River. The Pakistani army and Razakar killed 7 people and floated them in the Chitra River.</span></p> <div id="gtx-trans" style="position: absolute; left: -5px; top: 114px;">&nbsp;</div>
  • post-image
    নারিকেলবাড়িয়া বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয় বধ্যভূমি/ Narikelbaria High School Mass Killing Site
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">৪ নং নারিকেলবাড়িয়া ইউনিয়নের বাজারের পাশে নারিকেলবাড়িয়া হাইস্কুল ভবনটি ছিল রাজাকার ক্যাম্প। এই ক্যাম্পে </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">রাজাকাররা </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">বাঘারপাড়ার বিভিন্ন জায়গা থেকে স্বাধীনতাকামী বাঙালি</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">, <span lang="BN-BD">মুক্তিযোদ্ধাদের পরিবারের সদস্য ও অন্যান্য নিরীহ মানুষদের ধরে এনে অকথ্য নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করতো। এই বধ্যভূমিতে প্রায় ২০০ জনকে হত্যা করেছে রাজাকাররা। </span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN-BD"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span></span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN-BD"><span style="mso-spacerun: yes;">***</span></span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">T</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">here was a Razakar camp at the Narikelbaria High School building, next to Narkelbaria Union Market. In this camp, freedom fighters, libertarian Bangalis and other innocent people were taken from various places then tortured and killed by Razakars. Razakars have killed nearly 200 people in this mass killing site. </span></p>