বটিয়াঘাটা থানা- নিযার্তন কেন্দ্র, ২ নং বটিয়াঘাটা ইউনিয়ন/ Batiaghata Police Station Torture Center, 2 No Batiaghata Union

মুক্তিযুদ্ধের সময়ের বটিয়াঘাটা থানা ভবন বর্তমানে কাজী-বাছা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ঐ থানা ভবনটি ছিল এই এলাকার অন্যতম নির্যাতন কেন্দ্র। রাজাকারদের পাশাপাশি থানার পুলিশরা সাধারণ মানুষ, বিশেষ করে শরণার্থী হিসেবে যারা ভারতে যেতো তাদের ধরে এনে সর্বস্ব কেড়ে নিয়ে নির্মম নির্যাতন করতোএই থানার নির্মম নির্যাতনের খবর পেয়ে মুক্তিযোদ্ধারা থানা আক্রমণ করে এবং সেখানে প্রায় ১৮/১৯ জন পুলিশ নিহত হয়

 

*** 

 

In 1971, Razakars set up their camp and torture center in Bhatighata Police Station Building. The building has disappeared now due to river erosion. People, specially refugees who were going to India, were abducted from different regions, looted and then tortured in this center. 

 

নিকটবর্তী আরও স্থান
  • post-image
    বটিয়াঘাটা থানা- নিযার্তন কেন্দ্র, ২ নং বটিয়াঘাটা ইউনিয়ন/ Batiaghata Police Station Torture Center, 2 No Batiaghata Union
    <p class="MsoNormal" style="mso-margin-top-alt: auto; mso-margin-bottom-alt: auto; text-align: justify; line-height: normal;"><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">মুক্তিযুদ্ধের সময়ের বটিয়াঘাটা থানা ভবন বর্তমানে কাজী-বাছা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ঐ থানা ভবনটি ছিল এই এলাকার অন্যতম নির্যাতন কেন্দ্র। রাজাকারদের পাশাপাশি থানার পুলিশরা সাধারণ মানুষ</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">,</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Cambria, serif;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">বিশেষ করে শরণার্থী হিসেবে যারা ভারতে যেতো তাদের ধরে এনে সর্বস্ব কেড়ে নিয়ে নির্মম নির্যাতন করতো</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">এই থানার নির্মম নির্যাতনের খবর পেয়ে মুক্তিযোদ্ধারা থানা আক্রমণ করে এবং সেখানে প্রায় ১৮/১৯ জন পুলিশ নিহত হয়</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="HI">।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-ansi-language: EN; mso-bidi-language: BN;" lang="EN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-ansi-language: EN; mso-bidi-language: BN;" lang="EN">In 1971, Razakars set up their camp and torture center in Bhatighata Police Station Building. The building has disappeared now due to river erosion. People, specially refugees who were going to India, were abducted from different regions, looted and then tortured in this center.&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p>
  • post-image
    চক্রাখালী গণহত্যা, ১ নং জলমা ইউনিয়ন/ Chakrakhali genocide, 1 No. Jalma Union
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৯৭১ সালের ২৪ এপ্রিল দুপুরের পরপরই কাজীবাছা নদী দিয়ে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর নেভাল ফোর্সের ২টি গানবোট বটিয়াঘাটার জলমা বাজারে এসে থামে। গানবোট থেকে পাকিস্তানি সৈন্যরা নেমে প্রথমে চক্রাখালী হাইস্কুলে উপর্যপরি শেল নিক্ষেপ করে। কারণ তাদের কাছে খবর ছিল ঐ স্কুলে এলাকার মানুষ বিশেষ করে যুবকরা সংগঠিত হয়ে প্রশিক্ষণ নিচ্ছিল এবং বিভিন্ন জায়গা থেকে খাদ্য সামগ্রী সংগ্রহ করে রাখছিল। </span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">এরপর তারা এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়তে ছুঁড়তে গ্রামের ভেতর প্রবেশ করে। পাকিস্তানি সেনারা সেদিন চক্রাখালী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গজালমারীসহ আরো কয়েকটি গ্রামের সমস্ত ঘরবাড়ি <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয়। ঐ দিন পাকি সেনারা কমপক্ষে ৩০ জন মানুষকে হত্যা করে। যাদের নাম জানা যায় তারা হলেন চন্দ্রকান্ত রায়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">রবীন্দ্র নাথ বিশ্বাস এবং স্থানীয় জনৈক দুলালের ভাগ্নে (খুলনা শহর থেকে এসেছিল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নাম অজ্ঞাত)। </span></p>
  • post-image
    বাদামতলা বধ্যভূমি শহীদ স্মৃতি ফলক/ Badamtola mass killing site Martyr Memorial
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">খুলনা জেলার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বটিয়াঘাটা উপজেলায় অবস্থিত বাদামতলা বধ্যভূমি। ১৭ মে তারিখে খান-এ সবুরের কয়েক শত অনুসারী এই এলাকায় লুটপাট করতে এসে বাধাপেয় ফিরে যায়। ১৯ মে তারা আবার এসে কাজিবাছা নদীর তীরবর্তী গ্রামগুলোতে গুলি চালাতে চালাতে প্রবেশ করে। দেবিতলা গ্রমের উত্তর-পশ্চিম প্রান্তের নদী পেরুলে বাদামতলা বাজার। ফুলতলা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দেবীতলা প্রভৃতি গ্রমের মানুষেরা যেদিক পারছিল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ছুটে পালাচ্ছিল। পিছু পিছু পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ও খান-এ সবুরের কয়েক শত অনুসারী গুলি চালাতে চালাতে ছুটে আসছিল। বাদামতলা বাজারে আগেথেকে শরনার্থী জড়ো হয়েছিল। এরা রুপসা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ফকিরহাট</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">রামপাল থেকে পালিয়ে আসা লোক। পাকিস্তানি সেনাবাহিনী তঁদের বাদামতলা বাজারের অদুরে জড়ো করে গুলি চালাতে থাকে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">শরনার্থীরাও যেদিকে পারে পালাতে থাকে। ১০০ এর অধিক লোক নিহত হয়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">যাদের অনেকেরই পরিচয় পাওয়া যায়নি। যাদের পরিচয় পাওয়া যায় তাঁরা হলেন- গীতাঞ্জলী বিশ্বাস</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দিনেস বিশ্বাস</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">,</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">অমূল্য রায়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মনোরমা রায়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ব্রজেন্দ্রনাথ বিশ্বাস</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নিত্যানন্দ মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মৌসুমী বৈরাগী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মনোহর মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মান্দার ঢালী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কুঞ্জবিহারী মন্ডল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সাহেব ঠাকুর</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বীরেন তরফদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সুরেন্দ্রনাথ বাছাড় ও সামনুর রহমান। বাদামতলা গণহত্যা থেকে যারা বেচে যায় তরাই আবার ২০ মে চুকনগর গণহত্যা শিকার হয়।&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">২০ জুন ২০১৪ &lsquo;১৯৭১ গণহত্যা-নির্যাতন আর্কাইভ ও জাদুঘরের&rsquo; ট্রাষ্টি সভাপতি অধ্যাপক ড. মুনতাসীর মামুন বাদামতলা বধ্যভ&rsquo;মির পরিচিতি ফলক স্থাপন করেন। সঙ্গে ছিলেন ট্রাষ্টি সম্পাদক ডা. শেখ বাহারুল আলম</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">অধ্যক্ষ ড. আবুল কালাম আজাদ ও সাংবাদিক গৌরঙ্গ নন্দী।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">***</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">Badamtola mass-killing site is situated at Batiaghata Upazilla in Khulna. On 17<sup>th</sup> May some supporters of Khan A. Sobur tried to loot here but they couldn&rsquo;t accomplish. They again came and started to fire on the villages near Kajibacha River. People of Fultola and Debitola villages became panicked and started to run here and there. A lot of refugee from Rupsha, Fakirhat and Rampal gathered at Badamtola Bazar (Market). Nealry 100 of people died that day and most of their names remains unknown. Those who survived that day became the victim of Chuknagar Genocide on 20<sup>th</sup> May. </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">On 20<sup>th</sup> June 2014 Dr. Muntassir Mamoon</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">trusty-chairperson of &lsquo;1971: Genocide-Torture Archive and Museum&rsquo;,</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"> built a sign board of Badamtola Genocide. Trusty Secretary Dr. Sheik Baharul Alam, Principle Dr. Abul Kamal Azad and Journalist Gaurangi Nandi were also present there.</span></p>
  • post-image
    বাদামতলা গণহত্যা, ২ নং বটিয়াঘাটা ইউনিয়ন/ Badamtola Genocide, 2 No Batiyaghata Union
    <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৯৭১ সালের ১৯ মে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাদামতলা বাজারের পাশে অনেক মানুষকে হত্যা করে। খুলনা</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">, <span lang="BN">বাগেরহাট</span>, <span lang="BN">পিরোজপুর অঞ্চলের হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ বটিয়াঘাটার উপর দিয়ে শরণার্থী হিসেবে ভারতে যাচ্ছিল। সেই সময় পাকিস্তানি বাহিনী বাদামতলা বাজার</span>, <span lang="BN">দেবীতলা</span>, <span lang="BN">ফুলতলা</span>, <span lang="BN">বসুরাবাদ প্রভৃতি গ্রামে ঢুকে অসংখ্য ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেয় এবং নিরীহ নিরপরাধ মানুষকে হত্যা করে। এখানে কমপক্ষে ২০০ জন মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। </span></span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">২০১৫ সালে </span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&lsquo;<em><span lang="BN">১৯৭১ : গণহত্যা-নির্যাতন আর্কাইভ ও জাদুঘর</span>&rsquo;</em><span lang="BN"> ট্রাস্টের উদ্যোগে শহীদদের স্মরণে একটি স্মৃতিফলক স্থাপন করা হয়।</span></span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">***</span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">On 19<sup>th</sup></span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">May in 1971, The Pakistani Army killed many people in a place beside Badamtola Bazar(market). Many people, specially of Hindu community, from Khulna, Bagerhat and Pirojpur were crossing Batiaghata to go India as refugees. In that time, the Pakistani army had killed many people and set fire to their houses. Almost 2 hundred people were killed there. In 2015, a memorial has been established to remember the martyrs by &lsquo;1971: Genocide-Torture Archive &amp; Museum Trust&rsquo;.</span></p>
  • post-image
    গল্লামারি বধ্যভূমি, ১ নং জলমা ইউনিয়ন/ Gallamari Mass Killing Site, 1 No. Zolma Union
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে বৃহৎ বধ্যভূমির মধ্যে গল্লামারী অন্যতম। মুক্তিযুদ্ধের সময় এই এলাকা ছিল নির্জন। লোকজনের চলাফেরা ছিল কম। গল্লামারী নদীর পাশে ছিল ধানক্ষেত। যুদ্ধ শুরুর পর থেকে দীর্ঘ নয় মাস খুলনা শহর ও এর আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে মুক্তিযোদ্ধা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;">, <span lang="BN">মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের মানুষসহ বিপুল সংখ্যক মানুষকে এখানে এনে হত্যা করে মৃতদেহ নদীতে ভাসিয়ে দেয়া হতো। খুলনা সার্কিট হাউস</span>, <span lang="BN">রেডিও স্টেশন</span>, <span lang="BN">লায়ন্স স্কুল</span>, <span lang="BN">ইউ এফ ডি ক্লাব<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>প্রভৃতি নির্যাতন কেন্দ্রে নির্যাতনের পর প্রায় প্রতিদিন রাতে ট্রাকে করে তাদের এখানে এনে হত্যা করা হতো। প্রথম দিকে গুলি করে হত্যা করতো</span>, <span lang="BN">পরে বিহারীরা জবাই করে হত্যা করতো। এই বধ্যভূমিতে<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>কমপক্ষে দশ হাজার মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। খুলনা শহর মুক্ত হওয়ার পর এই বধ্যভূমি থেকে দুই ট্রাক মাথার খুলি পাওয়া গিয়েছিল। শহীদদের স্মরণে এখানে স্মৃতিস্তম্ভ স্থাপিত হয়েছে।</span></span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;"><span lang="BN">***&nbsp;</span></span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;">Gallamari was a name of terror during the time of liberation war, 1971. There was a one-storied building of radio-station at that time, which has been replaced currently by two-storied administrative building of Khulna University. In 1971, the building was a center of genocide and torture. Innocent Bengalis were abducted from different places and kept in this building. They were then tortured brutally until they are dead. Their dead-bodies were thrown out in the river afterwards. Early on, Bengali people were killed by firing, and later they were slaughtered by cutting one&rsquo;s throat. According to many eyewitnesses, the number of people killed in this place during the time of 1971 is around ten thousand. They also said that, the situation of this place that they had observed in 16-17 December was beyond imagination.<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>The place was full of corpse, skulls, skeletons, bones. Someone wrote on the wall of the torture center that, &lsquo;Mother, we might not meet again&rsquo;! He wrote this sentence on the wall by his own blood.</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span></p>
  • post-image
    গল্লামারি গণহত্যা/ Gallamari Genocide
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধকালে গল্লামারী ছিলো এক আতঙ্কের নাম। খুলনা শহরের অদূরবর্তী এই জায়গাটি ১৯৭১ এ ছিলো বেশ নির্জন।<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>গল্লামারী নদীর উপরে বর্তমানে পাকা সেতুটি তখন ছিলো কাঠের পোল। ছিলো না খুলনা-সাতক্ষীরা রোড। বর্তমান খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের দোতলা প্রশাসনিক ভবনটি ছিল তখন একতলা বেতারকেন্দ্র। এই ভবন থেকে বেতার কার্যক্রম সম্প্রচার করা হতো। এই ভবন ৭১ এ ছিল নির্যাতন ও গণহত্যার কেন্দ্র। একদিকে নির্জনতা অন্যদিকে পাশ দিয়ে নদী বয়ে যাওয়ার ফলে গড়ে তোলা হয় বধ্যভূমি। নিরীহ বাঙালিদের ধরে এনে এই ভবনে আটকে রাখা হতো</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">নির্যাতন করা হতো। নির্যাতনের জন্য ভবনের পিছনের একটি দোচালা ঘর ও সামনের চত্বর ব্যবহার করা হত। মৃত্যু নিশ্চিত হলে লাশগুলো ফেলে দেওয়া হতো সামনে বয়ে যাওয়া নদীতে এবং সামনে নির্জন জায়গাটিতে। </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৯৭১ সালে খুলনা বেতার কেন্দ্রের এনাউন্সার হামিদুর রহমান বলেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তখন বেতার কেন্দ্রে চাকরি করতে হতো মিলিটারি বেস্টনির ভিতর দিয়ে। দুর-দুরান্ত থেকে লোকজন এনে বেতার কেন্দ্রে পুলিশ ব্যারাকে রাখা হতো। তারপর সন্ধ্যা হলে সেই নিরীহ লোকগুলোকে দাঁড় করিয়ে ব্রাশফায়ার করা হতো। কিছুদিন পরে ফায়ার করার পরিবর্তে জবাই করতো জল্লাদেরা। সেই সময়ে বাঙালি কিছু রাজাকার পাকবাহিনীর কাছ থেকে বাঙালি হত্যা করার দায়িত্ব নেয়।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সারাদিন ধরে শহর ও গ্রাম থেকে বাঙালিদের ধরে এনে হেলিপোর্ট ও ইউ.এফ.ডি ক্লাবে জমায়েত করতো। তারপর মধ্যরাতে হতভাগ্য নিরীহ বাঙালিদের পেছনে হাত বেঁধে বেতার কেন্দ্রের সামনে দাঁড় করিয়ে স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র দ্বারা তারা ব্রাশ ফায়ার করতো। হত্যার আগে তাদের ট্রাকে ভরে যখন নিয়ে আসা হতো তখন তাদের আর্তনাদ রাস্তার আশেপাশের মানুষ শুনতো। কিন্তু কারফিউয়ের কারণে তাদের বাইরে যাওয়ার উপায় ছিল না। তাদের আপনজনের লাশ শনাক্ত করলেও সেখান থেকে উঠিয়ে নিতে পারতেন না। কেননা বর্বরেরা জানতে পারলে তাকেও হত্যা করবে। কিছুদিন জল্লাদেরা ঠিক করল গুলি করে আর হত্যা নয়। এবার শুরু হল জবাই করে হত্যা। কিন্তু সংখ্যা কমলো না</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সেই শতাধিক প্রতি রাতে।<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>কিছুদিন পরে রাতের সঙ্গে দিনের বেলাতেও হত্যা শুরু করল। সকলের চোখের সামনে দিয়ে পিঠমোড়া দিয়ে ট্রাকভর্তি বাঙালিদের গল্লামারী নিয়ে যাওয়া হতো</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ঘণ্টাখানেক পরে খালি ট্রাক ফিরে আসতো</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গল্লামারীতে পড়ে থাকতো তাদের নিথর দেহগুলো। অনেকেরই নির্যাতনে মৃত্যু হতো</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কাউকে কাউকে গুলি করে অথবা বেয়নেট দিয়ে অথবা জবাই করে হত্যা করা হতো। খুলনা শহর মুক্ত হওয়ার পরে গল্লামারী খাল থেকে দুই ট্রাক মাথার খুলি পাওয়া গিয়েছিলো। </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দেশ স্বাধীনের পরে অনেকেই ঐ ঘরটিতে নির্যাতিতদের রক্তমাখা জামা-কাপড় ও ব্যবহার্য টুকিটাকি জিনিসপত্র যেমন দেখেছেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">; </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তেমনি দেয়ালে রক্ত দিয়ে নানা আকুতির কথা লেখা দেখেছেন। পাকিস্তানি সেনাদের হাতে নির্যাতিত এমনি একজনের আকুতিভরা কথা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, &lsquo;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তোমার সাথে আমার আর দেখা হবে না</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">&rsquo;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';"><span style="mso-tab-count: 1;">&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp; </span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">এ প্রসঙ্গে ১৯৭১ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি দৈনিক বাংলায় লেখা হয়-</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">&ldquo;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গল্লামারী খুলনা শহরের কেন্দ্রস্থল থেকে মাত্র দেড় মাইল। সেখানে শুধু ধানের ক্ষেত। মার্চের আগে গল্লামারী নামটা শুনলে চোখের সামনে ভেসে উঠতো ধানের শীষে শীষে ভরে ওঠা দিগন্ত বিস্তীর্ণ ভূমি। কিন্তু মার্চের পরে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">? </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তখন গল্লামারী নাম শুনলে খুলনার যে কোন লোকের মন আতঙ্কে ভরে উঠতো। হাজার হাজার বাঙালির রক্তে রঞ্জিত হয়েছে গল্লামারী। আমার মনে হয় বাংলাদেশে গল্লামারীর মতো কোনো দ্বিতীয় স্থান নেই- যেখানে জল্লাদেরা এত অধিক সংখ্যক বাঙালিকে হত্যা করেছে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">&rdquo;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';"><span style="mso-tab-count: 1;">&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp; </span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার এক সাক্ষাৎকারে বলেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">,</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';"><span style="mso-tab-count: 1;">&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp; </span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৬ ও ১৭ ডিসেম্বর এখানে এসে লাশের পচা দুর্গন্ধ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কঙ্কাল</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হাড়-গোড় এবং মাথার খুলিতে পা রাখা দায়। যা আজ কল্পনাকেও হার মানায়। যেখানে আজকের বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সেখানে ছিলো ধানক্ষেত। গল্লামারী নদী তীরবর্তী এলাকা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আশেপাশের ধানক্ষেত</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সামান্য দূরের বেতার সম্প্রচার ভবন প্রভৃতি গোটা এলাকায় ছিলো হাজার হাজার মানুষের নিথর দেহ। অনেকে ছুটে গেছেন সেদিন স্বজনকে খুঁজতে। দুর্গন্ধে বাতাস ভারী হয়ে ওঠা এলাকায় নাক-মুখ চেপে সেই অবশেষ লাশ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হাড়-গোড় ও কঙ্কালের মধ্যে প্রিয়জনের স্মৃতিচিহ্ন খুঁজে ফিরেছে। কেউ পেয়েছে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কেউ পায়নি। </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';"><span style="mso-tab-count: 1;">&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp;&nbsp; </span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গল্লামারী বধ্যভূমিতে কতজনকে হত্যা করা হয়েছিলো</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তা যেমন নিরুপণ করা সম্ভব হয়নি</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">; </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তেমনি এখানে কাদের হত্যা করা হয়েছিলো</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তার বেশিরভাগই শনাক্ত করা সম্ভব হয় নি। </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">কেননা যুদ্ধকালে কেউ সেখানে যেতে সাহস করতেন না। যুদ্ধশেষে যারা গেছেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">তারা দেখেছেন নরকঙ্কালের স্তূপ। বিভিন্ন প্রতক্ষদর্শীর মতে এখানে শহিদের সংখ্যা দশ হাজারের কাছাকাছি। এদের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা শান্তিলতা সাহা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দাকোপ থানার গড়খালী গ্রামের মাহাতাব বিশ্বাস অন্যতম। এই নারকীয় ঘটনায় অংশ নেয় স্থানীয় রাজাকার নওশের শেখ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">জহুর শেখ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সোহরাব মোল্লা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হামিজুদ্দিন শেখ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সফি গাজী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আসমতো গাজী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আলাহি সানা ও মনি সানা।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস লেখক সুকুমার বিশ্বাস দেশ স্বাধীনের পর পরই গল্লামারীতে একাধিকবার গিয়েছেন। তিনি লিখেছেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৯৭২ সালে এই গল্লামারী বধ্যভূমিতে আমি একাধিকবার গেছি। গিয়েছিলাম খুলনা বেতার কেন্দ্রেও। স্টুডিওগুলো ছিল ধ্বংসপ্রায়। একটি স্টুডিও কক্ষে বাদ্যযন্ত্রগুলো ভেঙ্গে চুরমার হয়ে পড়েছিল। কেবল বেতার কেন্দ্র নয় খুলনার প্রায় সব এলাকা ঘুরেছিলাম। আমি ও আমার তিন সহকর্মী গিয়েছিলাম </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">&ldquo;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">জাতীয় স্বাধীনতার ইতিহাস পরিষদ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">&rdquo;-</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">এর পক্ষ থেকে স্বাধীনতা যুদ্ধের তথ্য সংগ্রহ করতে। </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">&lsquo;&lsquo;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সেদিন গল্লামারীর বিস্তীর্ণ এলাকায় যে বীভৎস রূপ আমি দেখেছিলাম- তা আজ আর আমার পক্ষে বর্ণনা করা সম্ভব নয়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মানব ইতিহাসে এই করুণতম দৃশ্য যেন আর কোনো মানব সন্তানকে দেখতে না হয়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">&rdquo;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">।</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-family: Kalpurush; color: black; background: white;">Gallamari was a name of terror during the time of liberation war, 1971. There was a one-storied building of radio-station at that time, which has been replaced by two-storied administrative building of Khulna University at present. In 1971, the building was a center of genocide and torture. Innocent Bengalis were abducted from different places and kept in this building. They were then tortured brutally until they are dead. Their dead-bodies were thrown out in the river afterwards. </span><span style="font-family: Kalpurush; color: black; background: white; mso-bidi-language: BN;">Early on, Bengali people were killed by firing, and laterthey were slain by cutting one&rsquo;s throat.According to many eyewitnesses, the number of people killed in this place during the time of 1971 is around ten thousand. They also said that, the situation of this place that they had observed in 16-17 December was beyond imagination. <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>The place was full of corpse,skulls, skeletons, bones.Someone wrote on the wall of the torture center that, &lsquo;Mother, we might not meet again&rsquo;! He wrote this sentence on the wall by his own blood. </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p>
  • post-image
    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ স্মৃতিফলক/ Khulna University Martyr memorial
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পাকিস্তান আমলে খুলনা রেডিও স্টেশনটি ছিল গল্লামারীতে। বর্তমানে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় যেখানে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সেখানেই ছিল রেডিও সেন্টার। এর মূল ভবনটি একাত্তরে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর অন্যতম প্রধান নির্যাতন কেন্দ্র ছিল। যুদ্ধের পুরো সময়ে<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বিভিন্ন সময়ে অসংখ্য মানুষকে ধরে এনে মূল ভবনের ভেতরে এবং বাইরে গাছে ঝুলিয়ে নির্মমভাবে নির্যাতন করে তারপর রাতের অন্ধকারে গল্লামারী বধ্যভূমিতে নিয়ে হত্যা করতো।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">বর্তমানে এখানে স্মৃতিফলক স্থাপন করা হয়েছে।</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: black; mso-bidi-language: BN;">The Khulna radio station was in the Gallamari, although the radio station has been replaced by Khulna University now. The main building of the radio station was a torture cell of Pakistani military force. Pakistani military, with the help to their local associates, used to capture and bring people from different places, and then killed them brutally in the camp. </span></p>
  • post-image
    গজালিয়া গেট গণহত্যা, ৪ নং সুরখালী ইউনিয়ন/ Gojalia Gate Genocide, 4 No Surkhali Union
    <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">১৩৭৮ বঙ্গাব্দের ১১ আশ্বিন শব-ই-বরাতের রাতে গাওঘরা গ্রামের রাজাকাররা মুক্তিযোদ্ধা হালিমসহ ১১ জনকে হত্যাকরে। নদীর তীরে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে গুলি করে তাদের লাশ গজালিয়া গেটের পানির স্রোতে ভাসিয়ে দেয়া হয়। ঐ গণহত্যার শিকার হন আব্দুল হামিদ সরদার</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">আব্দুস সাত্তার সরদার</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">ইরান উদ্দীন মোল্লা</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">আব্দুল করিম শেখ</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">গোবিন্দ অধিকারী</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">ওমর গাজী</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">গোষ্ঠবিহারী ভদ্র</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">সুশিল ভদ্র</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">আব্দুর রহমান গোলদার</span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14pt; font-family: Kalpurush;" lang="BN">ইব্রাহীম গাজী।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">***&nbsp;</span></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal" style="margin-bottom: 10.0pt; text-align: justify; mso-line-height-alt: 12.65pt; background: white;"><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">On 26<sup>th</sup></span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: 'Cambria',serif; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; mso-bidi-font-family: Cambria; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; font-family: Kalpurush; mso-fareast-font-family: 'Times New Roman'; color: #222222; mso-bidi-language: BN;">September in 1971 (night of Shab-E-Barat), The Razakars from Gaoghora had killed 11 people including freedom fighterHalim. The Razakars had killed the people on the bank of the river and thrown their bodies away on the river. </span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p>
  • post-image
    গজালিয়া গেট শহীদ স্মৃতি ফলক/ Gojalia Gate Martyr Memorial
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৩৭৮ বঙ্গাব্দের ১১ আশ্বিন শব-ই-বরাতের রাতে গাওঘরা গ্রামের রাজাকাররা মুক্তিযোদ্ধা হালিমসহ ১১ জনকে হত্যা করে। নদীর তীরে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে গুলি করে তাদের লাশ গজালিয়া গেটের পানির স্রোতে ভাসিয়ে দেয়া হয়। ঐ গণহত্যার শিকার হন আব্দুল হামিদ সরদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আব্দুস সাত্তার সরদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ইরান উদ্দীন মোল্লা</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আব্দুল করিম শেখ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গোবিন্দ অধিকারী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ওমর গাজী</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গোষ্ঠবিহারী ভদ্র</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সুশিল ভদ্র</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">আব্দুর রহমান গোলদার</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">ইব্রাহীম গাজী।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">রবিবার বিকাল ৪টায় গজালিয়া গেটের পাশে স্মৃতিফলক উদ্বোধন করেন জাদুঘর ট্রাস্টের সভাপতি বঙ্গবন্ধু অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন।</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;"><span style="mso-spacerun: yes;">***&nbsp; &nbsp;&nbsp;</span></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">Razakars of Gaoghora village killed 11 people including freedom fighter Halim on 26<sup>th</sup> September 1971. This was the&nbsp; night of Shab E Barat. The Razakars fired upon them on the bank of the river then threw away their bodies. The victims of this genocide are Abdul Hamid Sarkar, Abdus Sattar Sarkar, Iran Uddin Molla, Abdul Karim Sheik, Omar Gaji, Ibrahim Gaji, </span><span style="font-size: 14pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">Ghostbihari Vodro, Sushil Vodro </span><span style="font-size: 14pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">and others.</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush;">&lsquo;1971: Genocide-Torture Archive and Museum Trust&rsquo; has built a memorial in 2018. </span></p>
  • post-image
    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় বধ্যভুমি/ Khulna University Mass-killing site
    <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পাকিস্তান আমলে খুলনা রেডিও স্টেশনটি ছিল গল্লামারীতে। বর্তমানে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় যেখানে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali';">, </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">সেখানেই ছিল রেডিও সেন্টার। এর মূল ভবনটি একাত্তরে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর অন্যতম প্রধান নির্যাতন কেন্দ্র ছিল। যুদ্ধের পুরো সময়ে<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বিভিন্ন সময়ে অসংখ্য মানুষকে ধরে এনে মূল ভবনের ভেতরে এবং বাইরে গাছে ঝুলিয়ে নির্মমভাবে নির্যাতন করে তারপর অনেককে এখানে হত্যা করতো।</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">***</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 107%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">The Khulna radio station was in the Gallamari, although the radio station has been replaced by Khulna University now. The main building of the radio station was a torture cell of Pakistani military force. Pakistani military, with the help to their local associates, used to capture and bring people from different places, and then used to them brutally in the camp.</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Siyam Rupali'; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"></span></p>