নাজিরপুর বধ্যভূমি/ Nazirpur Mass Killing Site

 

পাবনা জেলার সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের একটা গ্রাম হলো নাজিরপুর গ্রাম ১৯৭১ সালের ১ ডিসেম্বর মতান্তরে ১৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এক মর্মান্তিক গণহত্যা সংগঠিত করে এই নাজিরপুর গ্রামের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে একে একে ৬১ জনকে ধরে আনে নাজিরপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে তাদের অপরাধ ছিলো মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগিতা করা অতঃপর, তাদেরকে দাঁড় করিয়ে একে একে গুলি করে হত্যা করা হয়

*** 

 

Nazirpur is a village of Hemayetpur Union of Pabna Zilla Sadar. On 1st December (some says 14th December), the Pakistani army perpetrated a tragic genocide. They had abducted 61 people from the Nazirpur village and gathered them Primary school field. Their 'crime' was to assist the freedom fighters. They were all killed brutally that day.

 

 

নিকটবর্তী আরও স্থান
  • post-image
    নাজিরপুর বধ্যভূমি/ Nazirpur Mass Killing Site
    <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">পাবনা জেলার সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের একটা গ্রাম হলো নাজিরপুর গ্রাম</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">১৯৭১ সালের ১ ডিসেম্বর মতান্তরে ১৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এক মর্মান্তিক গণহত্যা সংগঠিত করে</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">এই নাজিরপুর গ্রামের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে একে একে ৬১ জনকে ধরে আনে নাজিরপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">তাদের অপরাধ ছিলো মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগিতা করা</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="HI">&nbsp;অতঃপর,&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">তাদেরকে দাঁড় করিয়ে একে একে গুলি করে হত্যা করা হয়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">***&nbsp;</span></p> <p>&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">Nazirpur is a village of Hemayetpur Union of Pabna Zilla Sadar. On 1<sup>st</sup> December (some says 14<sup>th</sup> December), the Pakistani army perpetrated a tragic genocide. They had abducted 61 people from the Nazirpur village and gathered them Primary school field. Their 'crime' was to assist the freedom fighters. They were all killed brutally that day.</span></p> <p>&nbsp;</p> <p>&nbsp;</p>
  • post-image
    নাজিরপুর গণহত্যা
    <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পাবনা জেলা সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের একটা গ্রাম হলো নাজিরপুর গ্রাম। ১৯৭১ সালের ১ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এক মর্মান্তিক গণহত্যা চালায় এখানে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>এই নাজিরপুর গ্রামের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে একে একে ৬১ জনকে ধরে আনে নাজিরপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>তাদের অপরাধ ছিলো মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগিতা করা। এই অপরাধে তাদেরকে দাড় করিয়ে একে একে গুলি করে হত্যা করে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>শান্তি কমিটির লোকদের কুমন্ত্রণা ও সরবরাহ কৃত তথ্যের উপর ভিত্তি করে পাকিস্তানি সৈন্যরা এ গ্রামে অপারেশন করে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span></span></p> <p class="MsoNormal"><span style="mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পাকিস্তানি হানাদার বাহিনির একটি দল এ সময় গ্রামের বিভিন্ন বাড়িঘর লুট করে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>প্রায় ৫০০ ঘর আগুন দিয়ে পুরিয়ে দেয়। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>তারা অনেক নারীর উপর হৃদয়হীনভাবে নির্যাতন চালায়।<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>তারা সেদিন ৫৭ জন লোককে হত্যা করে।</span></p>
  • post-image
    বালিয়াহালট বধ্যভূমি/ Baliahalt Mass Killing Site
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">পাবনা শহর থেকে আধমাইল দূরে বালিয়াহালট পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বর্বরতার চরম সাক্ষ্য বহন করে দাঁড়িয়ে আছে</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">এই এলাকায় হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসররা নির্যাতন করে শত শত বাঙালিকে হত্যা করে ফেলে রেখে যায়</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">এ অঞ্চলের ঝোপঝাড়ের ভেতরে বহুসংখ্যক মানুষের কঙ্কাল পাওয়া যেত</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">ওয়াপদা পাওয়ার হাউজের সিমানার পাশে একটা দোতলা দালান ছিলো</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এটাকে কসাইখানা হিসেবে ব্যবহার করতো</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">এই ভবনের পাশেই একটি গর্তে ৬০ টি নরকঙ্কাল পাওয়া যায়</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="font-size: 18.6667px;">Baliahalt, h</span>alf a mile away from the city of Pabna, carries the brutal evidence of the inhumanity of the Pakistani Military forces. The Pakistani army had tortured hundreds of Bengalis here. There was a two-storied building besides Wapda Power House. The Pakistani Military forces used it as a slaughterhouse. 60 skeletons were found in a pit besides the building.</span></p>
  • post-image
    পুলিশ গণহত্যা, বালিয়াহালট/ Police Genocide in Baliyahalot
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">১৯৭১ সালের ৭ মে পাকিস্তান সেনাবাহিনী পাবনা পুলিশ লাইন আক্রমন করে ৪০ জন বাঙালি পুলিশ সদস্যকে ধরে নিয়ে যায় ওয়াপদা পাওয়ার হাউজ নির্যাতন কেন্দ্রে। সেখানে তাঁদেরকে অমানুষিক নির্যাতন করে নিয়ে যাওয়া হয় পাবনা শহরের নিকটে অবস্থিত বালি</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">য়া</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">হালট গোরস্থানের পাশে। এখানে এই ৪০ জন পুলিশ সদস্যকে বেয়নেট চার্জ করে এবং গুলি করে হত্যা করে।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><br /></span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">***</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">On <span lang="BN-BD">7 </span>May, the Pakistan army attacked a Pabna police line and arrested 40 Bengali policemen and took them to Wapda Power House torture center. Then they were taken to Baliyahalot graveyard. Those 40 policemen were charged bayonets and killed.</span></p>
  • post-image
    সার্কিট হাউজ বধ্যভূমি/ Circuit House Mass killing Site
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">পাবনা শহরের বিভিন্ন বধ্যভূমির মধ্যে অন্যতম ছিলো সার্কিট হাউজের গ্যারেজ</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">যুদ্ধের সময় পাকবাহিনীর বড় বড় অফিসাররা এখানে রাত্রিযাপন করতো</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">আর অন্যদিকে পাবনা শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে নিরীহ বাঙালিদের ধরে এনে সার্কিট হাউজের পেছনের গ্যারেজে আটকে নির্যাতন করে হত্যা করা হত</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">এই গ্যারেজ ছিল পাকিস্তানি সেনা ও তাদের দোসরদের টর্চারসেল</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">এখানে যাদেরকে হত্যা করা হত না তাদেরকে বিসিকের ভেতরের ফাঁকা মাঠে নিয়ে গুলি করে হত্যা করে মাটিতে পুতে রাখা হতো</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">Circuit House Garage was one of the heinous mass killing sites of the city of Pabna. During the wartime, many high officials of the Pakistani army used to spend the night here. On the other hand, innocent Bengalis were taken from various places of Pabna and were tortured and killed in the garage behind the circuit house. The garage was a torture cell of the Pakistani army and their allies. Those who were not killed here, were shot in the field inside BSCIC and buried on the ground.</span></p>
  • post-image
    ওয়াপদা পাওয়ার হাউজ বধ্যভূমি/ Wapda Power House Mass Killing Site
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">পাবনা শহরের ওয়াপদা পাওয়ার হাউজের সমগ্র এলাকা ছিলো একটা বধ্যভূমি</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">১৯৭১ সালের নয়মাস পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী পাবনার সাধারণ মানুষকে নির্যাতন ও হত্যা করে এখানে ফেলে যেত</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">যেকারণে ওয়াপদা পাওয়ার হাউজের অফিস প্রাঙ্গণে ১৯৭১ সাল পরবর্তী সময়ে মাটি খুড়ে বহু বিক্ষিপ্ত কবর পাওয়া যায় এবং হাজার হাজার নর কঙ্কাল সেখান থেকে আবিস্কার করা হয়</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।&nbsp;</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span lang="BN-BD">এই পাওয়ার হাউজ অফিসটি পাকিস্তানি সেনাবাহিনী তাদের সদর দপ্তর হিসেবে ব্যবহার করেছে</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"><span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span><span lang="BN-BD">স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বিবরণে জানা যায় এখানে নয়মাস জুড়ে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী কমপক্ষে ৩ হাজার জনকে হত্যা করেছিলো</span></span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Mangal',serif; mso-ascii-font-family: Kalpurush; mso-hansi-font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: HI;" lang="HI">***&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">The whole area of </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Times New Roman',serif; mso-bidi-language: BN-BD;">​​</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">Wapda Power House in Pabna was a mass killing site. For the entire nine months of the liberation war, the Pakistani army used to torture and kill the common people of Pabna. That is why even after the victory, many scattered graves</span> <span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">and thousands of skeletons were found on the ground of the post office in Wapda Power House. This powerhouse office was used by the Pakistani army as their headquarters. According to local and eyewitness, the Pakistani invaders killed at least 3,000 people in the nine months of the liberation war.</span></p>
  • post-image
    চরকুরুলিয়া, চরগড়গড়ী গ্রাম গণহত্যা
    <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মুক্তিযুদ্ধের সময় পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার চরকুরুলিয়া এবং চগড়গড়ী গ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো ছিল না। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>সে কারণে এ স্থানে পাবনা শহর থেকে সাধারণ নারী পুরুষ এসে আশ্রয় নিয়েছিলো। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>সাধারণ মানুষের আশ্রয়ের পাশাপাশি এ অঞ্চল নিরাপদ হওয়ায় মুক্তিযোদ্ধারা এখানে অবস্থান করতো এবং বিভিন্ন সময়ে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর উপর হামলা করতো। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>আর এ কারণেই এই এলাকা পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ও তাদের দোসরদের নজরে চলে আসে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>মুক্তিযুদ্ধের শেষ দিকে ১৯৭১ সালের ২৭ নভেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এ গ্রামে হামলা করে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>তারা প্রথমেই চরকুরুলিয়া এবং চগড়গড়ী গ্রাম আগুন দিয়ে নিশ্চিহ্ন করে দেই। সৌভাজ্ঞবসত সাধারণ বাঙালি পাকিস্তানিদের আসার খবর জানতে পেরে দ্রত গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যায়। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>তারপরেও পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর গুলিতে এদিন এ গ্রামের ৪ জন শহিদ হন। </span></p>
  • post-image
    পুলিশলাইন গণহত্যা
    <h1 class="MsoNormal">&nbsp;</h1> <h1><span style="font-size: 11.0pt; line-height: 115%; font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-fareast-font-family: Calibri; mso-fareast-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-ansi-language: EN-US; mso-fareast-language: EN-US; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">১৯৭১ সালের ১১ এপ্রিল পাকিস্তানি সৈন্য যখন পাবনা শহরে হানা দেয় তখন পুলিশ বাহিনীর দশ বারোজন সদস্য পুলিশলাইনে অবস্থান করছিলেন। &nbsp;পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী পাবনা শহরে ঢুকেই প্রথমে পুলিশ লাইনে আক্রমণ করে। &nbsp;এদের মধ্যে কয়েকজন পুলিশ সদস্য নিহত হন এবং বাকিরা পালাতে সক্ষম হন। &nbsp;এদিন সেখান থেকে নরপিশাচরা সমস্ত পাবনা শহরকে মৃত্যুপুরীতে পরিণত করে।</span></h1>
  • post-image
    তারাশ ভবনের সামনে গণহত্যা/ Tarash Building Genocide
    <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">১৯৭১ সালের ২৮ এপ্রিল বুধবার সকালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনি কোপন কারিগর ও রিয়াজ শেখ নামের দুজনসহ আরও কয়েকজনকে আটক করে। এসময় কোপন কারিগরকে সূরা বলতে বলে কিন্তু সে পারে না। অন্যদের কাপড় খুলে দেখে তারা হিন্দু না মুসলমান। তারপরে যাদেরকে আটক করে সবাইকে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনি গুলি করে হত্যা করে। স্থানীয় বৃদ্ধ নুরুল হক বলেন এদের মধ্যে একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে বেঁচে </span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">গিয়েছিলেন</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">। কিন্তু তিনি তারা নাম ঠিকানা কিছু জানেননা।</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;" lang="BN-BD">***</span></p> <p class="MsoNormal" style="text-align: justify;"><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;">On the morning of April 28, the Pakistani army arrested several others, including Kopan Karigor and Riaz Sheikh. They asked Kopan to recite Sura</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;" lang="BN"> (</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN;">From Holy Quran)</span><span style="font-size: 14.0pt; line-height: 115%; font-family: Kalpurush; mso-bidi-language: BN-BD;"> but he couldn&rsquo;t. Even the Pakistani army made them to take off their clothes to check their religion, whether they are Hindu or Muslim. Then the Pakistani army killed all of them. Only one of them survived from this massacre. </span></p>
  • post-image
    টেবুনিয়া গণহত্যা
    <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">&nbsp;</span></p> <p class="MsoNormal">&nbsp;</p> <p class="MsoNormal"><span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালে পাবনা শহরের নূরপুর ডাকবাংলো থেকে রাজাকার ও পিস কমিটির চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুস সুবহানের খবরের ভিত্তিতে ১৯৭১ সালের ২৩ মে<span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp; </span>আকবর হোসেন আকু</span>, <span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হাসান খাঁ</span>, <span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">দুলাল</span>, <span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">হায়দার আলী</span>, <span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">পুলিশ সিপাহি আল্লা রাখা</span>, <span style="font-family: 'Vrinda','serif'; mso-ascii-font-family: Calibri; mso-ascii-theme-font: minor-latin; mso-hansi-font-family: Calibri; mso-hansi-theme-font: minor-latin; mso-bidi-font-family: Vrinda; mso-bidi-language: BN;" lang="BN">মন্টু মিয়া ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জনৈক শিক্ষকসহ ২০ জনকে পাকিস্তানি হানাদারবাহিনী কালো কাপড়ে চোখ ও মুখ বেঁধে নিয়ে যাওয়া হয় টেবুনিয়া ডাল ও তৈল বীজ খামারের শেষ প্রান্তের রাস্তার পাশের একটি জঙ্গলের মধ্যে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>পাকবাহিনী নিষ্ঠুর ও নির্মমভাবে ওই ২০ জনকে গুলি করে ও বেয়নেট দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যা করে। <span style="mso-spacerun: yes;">&nbsp;</span>ভাগ্যক্রমে বেঁচে যায় পাবনা শহরের আরিফপুর মহল্লার পানের দোকানদার বাদশা মিয়া। সেখানে বর্তমানে শহীদদের গণকবরের স্মৃতি চিহ্ন নেই। </span></p>